চট্টগ্রামের পর দুশানবে, কাল আবারও আফগানদের সামনে বাংলাদেশ

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৭:০৯ পিএম, ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানের প্রথম টেস্ট ঘিরে গত পাঁচদিন ক্রীড়ামোদীদের চোখ ছিল চট্টগ্রামে। আশা-আশঙ্কা আর বৃষ্টির মাখামাখির চট্টলা টেস্ট শেষ হয়েছে বাংলাদেশের লজ্জার পরাজয়ে। টেস্ট দুনিয়ার নবীশ দেশটি ছড়ি ঘুরিয়েছে অভিজ্ঞতায় অনেক এগিয়ে থাকা বাংলাদেশের ওপর। দুই দেশের প্রথম টেস্টটি কিছুক্ষণ আগে অতীত হয়ে গেলেও কলঙ্কের খতটা দীর্ঘদিন থেকে যাবে সাকিব-মুশফিকদের গায়ে।

চট্টগ্রাম টেস্ট শেষ হওয়ার পরই দেশের ক্রীড়ামোদীদের দৃষ্টি নিক্ষিপ্ত বন্দর নগরী থেকে প্রায় ৩ হাজার কিলোমিটার দুরের শহর দুশানবেতে। চট্টগ্রাম টেস্ট হওয়ার ২৪ ঘণ্টা পেরোনোর আগেই তাজিকিস্তানের রাজধানীতে আরেকটি বাংলাদেশ-আফগানিস্তান লড়াই। ফুটবল বিশ্বকাপের বাছাই বলেই মর্যাদায় যে লড়াই অ-নে-ক, অ-নে-ক এগিয়ে।

ক্রিকেটে বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানের যে পার্থক্য, তেমনটা ফুটবলেও। তবে ক্রিকেটে যেখানে ধারে-ভারে অনেক এগিয়ে বাংলাদেশ, ফুটবলে তার উল্টো। ফিফা র্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের চেয়ে ৩৩ ধাপ এগিয়ে আফগানরা। আফগানিস্তান যেখানে চট্টগ্রাম টেস্ট শুরু করেছিল আন্ডারডগ হিসেবে সেখানে তাজিকিস্তানে দেশটির ফুটবল দল নামবে ফেবারিট হয়েই।

কাতার-২০২২ বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্বের লড়াই শুরু হয়েছে ৫ সেপ্টেম্বর। ‘ই’ গ্রুপে বাংলাদেশ ছাড়া অন্য চার দল প্রথম ম্যাচ খেলে ফেলেছে। আফগানিস্তান ৬-০ গোলে হেরেছে কাতারের কাছে, ভারতকে ২-১ গোলে হারিয়েছে ওমান। বাংলাদেশের শুরুটা কেমন হয় তা দেখা যাবে দুশানবের রিপাবলিকান সেন্ট্রাল স্টেডিয়ামে ৯০ মিনিটের লড়াইয়ে।

দীর্ঘ সময় ফিফার নিষেধাজ্ঞায় থাকায় আন্তর্জাতিক ফুটবলের বাইরে ছিল আফগানিস্তান। যে কারণে দেশটির সঙ্গে বেশি খেলা হয়নি বাংলাদেশের। নিষেধাজ্ঞার আগে ১৯৭৯ সালে দুটি এবং নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরার পর চারটি- সর্বসাকুল্যে আফগানিস্তান ৬ বার মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশের। জয়-পরাজয়ের পাল্লাটা সমান। একটি করে ম্যাচ জিতেছে দুই দল, চারটি ড্র।

মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় রাত ৮ টায় শুরু হতে যাওয়া খেলাটি আফগানিস্তানের হোম ম্যাচ। দেশটিতে নিরাপত্তা ঝুঁকির কারণে তারা হোম ভেন্যু হিসেবে বেছে নিয়েছে তাজিকিস্তানের দুশানবের রিপাবলিকান সেন্ট্রাল স্টেডিয়ামকে। টার্ফের মাঠেই বাংলাদেশকে নামতে হচ্ছে প্রথম পরীক্ষায়।

কন্ডিশন এবং টার্ফের সঙ্গে কিছুটা সখ্যতা তৈরির উদ্দেশ্যেই বাংলাদেশ ফুটবল দলের ইংলিশ কোচ জেমি ডে ১০ দিন আগে সেখানে গিয়েছেন শিষ্যদের নিয়ে। অনুশীলনের পাশাপাশি স্থানীয় প্রিমিয়ার লিগের দুটি ক্লাবের সঙ্গে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলে প্রথমটি হেরে দ্বিতীয়টি ড্র করেছে বাংলাদেশ। সব প্রস্তুতি সেরে জামাল ভূঁইয়রা এখন তারা যুদ্ধের ময়দানে নামার অপেকক্ষায়।

আরআই/আইএইচএস/পিআর