জমকালো আয়োজনে উন্মোচিত হলো বিপিএলের লোগো ও ট্রফি


প্রকাশিত: ০৪:০৬ পিএম, ১৮ জুলাই ২০১৬

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) প্রধান সালাউদ্দিন টানা তৃতীয়বারের মত নির্বাচিত হবার পরই জানিয়েছিলেন এবারের বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ফুটবল (বিপিএল) জাঁকজমকপূর্ণভাবে আয়োজন করা হবে।

আর তার শুরুতেই দারুণ জাঁকজমকপূর্ণভাবেই এ লিগের লোগো ও ট্রফি উন্মোচন করা হলো। লেজার শো, ফ্যাশন শো ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে উন্মোচন করা হলো জেবি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে’র লোগো ও ট্রফি।

সোমবার সন্ধা সাড়ে ৬টায় রাজধানীর একটি অভিজাত হোটেলে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানের শুরুটা হয় লেজার শোয়ের মাধ্যমে। প্রায় তিন মিনিট স্থায়ী এ শোতে ঝলসে ওঠে পুরো মঞ্চ। এরপর শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন ও পৃষ্ঠপোষকদের কর্মকর্তারা।

bpl

প্রথমে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও পেশাদার লিগ কমিটির চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম মুর্শেদী। ফুটবলের পুরনো সেই জৌলুস ফিরিয়ে আনার প্রত্যয় জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রধান লক্ষ্য ফুটবলের হারানো দর্শককে আবার মাঠে ফিরিয়ে আনা। এছাড়া দেশের আনাচে-কানাচে ফুটবলকে ছড়িয়ে এর জনপ্রিয়তা আবার ফিরিয়ে আনতে চাই। সে লক্ষ্যে দেশের চারটি ভেন্যুতে আমরা এবারের লিগের আয়োজন করা হয়েছে। আশা করছি আমরা আমাদের উদ্দেশ্য  সফল হবো।’

এরপর বক্তব্য দেন পৃষ্ঠপোষক সাইফ গ্লোবাল স্পোর্টসের চেয়ারম্যান তরফদার রুহুল আমিন, ‘দেশের ফুটবলের উন্নয়নে আমরা এগিয়ে এসেছি। শুধু তাই নয়, বাংলাদেশের প্রাণের খেলা ফুটবলকে আবার আগের মতো আকর্ষণীয় করে তোলাই আমাদের উদ্দেশ্য।’

এরপর মঞ্চে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন বাফুফে সভাপতি কাজী মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন। দেশের ফুটবলকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য দল মত নির্বিশেষে সকলকে আহ্বান জানান তিনি, ‘দেশের ফুটবলের উন্নয়নের লক্ষ্যে ক্লাবের অবকাঠামোর উন্নয়নসহ ক্লাবগুলোকে সহযোগিতার হাত বাড়াতে হবে। শুধু তাই নয় খেলোয়াড়দেরও মাঠের খেলায় দক্ষতা দেখিয়ে নিজেদের আন্তর্জাতিক মানের করে গড়ে তুলতে হবে।’

বাফুফে প্রধানের পর বক্তব্য রাখেন প্রধান অতিথি ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার, ‘ফুটবল বাঙ্গালীদের প্রাণের খেলা। সারাবিশ্বে সবচেয়ে বেশি খেলা হয় ফুটবল। তাই তৃণমূল পর্যায় থেকে ফুটবলার তুলে আনার লক্ষ্যে আগামী এক মাসের মধ্যেই সারাদেশে ১৩১ টি স্টেডিয়ামের টেন্ডারের কাজ শুরু করবে বাংলাদেশ সরকার। এছাড়াও কয়েক বছরের মধ্যে ৪৯০টি উপজেলায় একটি করে স্টেডিয়াম তৈরি করা হবে।’

bpl

প্রধান অতিথির বক্তব্যের পর শুরু হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। শুরুতে লিগে অংশগ্রহণকারী ১২টি দলের হোম এবং অ্যাওয়ে জার্সি পড়ে ফ্যাশন শো করেন মডেলরা। হোম জার্সিতে একজন পুরুষ মডেল এবং অ্যাওয়ে জার্সিতে একজন নারী মডেল এ শো করেন। বল  এবং দলগুলোর পতাকা নিয়ে মঞ্চে মডেলদের সাথে ক্যাটওয়াক করছেন প্রিমিয়ার লিগে অংশ নেয়া ১২ ক্লাবের অধিনায়করাও। ফ্যাশন শো শেষে উম্মচিত হয় লিগের থিম সং। এতে ফুটবল ও পতাকা হাতে নিয়ে আধুনিক নৃত্য পরিবেশন করেন নৃত্যশিল্পীরা। এরপর মঞ্চে গান গান কণ্ঠশিল্পীরা।

নৃত্য ও গান শেষে  উন্মোচিত হয় বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের লোগো। এরপর আকর্ষণীয়ভাবে উম্মচিত মূল আকর্ষণ লিগে ট্রফি। অনেকটা ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ট্রফিসদৃশ এ ট্রফিটি হাতে তুলে নেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের অধিনায়ক মামুনুল ইসলাম। তার সঙ্গে যোগ দেন সকল ক্লাবের অধিনায়করা। ট্রফি হাতে মঞ্চের সামনে এসে দাঁড়ান ক্লাবের অধিনায়করা।

উল্লেখ্য, ফুটবলের হারানো দর্শকদের ফিরিয়ে আনতে এবার গুরুত্বপূর্ণ কিছু উদ্যোগ নিয়েছে বাফুফে। এবারের লিগে মত খেলা অনুষ্ঠিত নবে ১৩২টি। প্রত্যেকটি খেলাই সম্প্রচার করা হবে টিভিতে। বাংলাদেশ টেলিভিশন এবং বেসরকারী টিভি বৈশাখীতে সম্প্রচার হবে ম্যাচগুলো। এছাড়াও খেলাগুলোর ধারাবিবরনী প্রচার করবে এফএম রেডিও নেক্সট।

আরটি/আইএইচএস/এবিএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]