পাপনের প্যানেল ঘোষণা

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৬:০৪ পিএম, ২০ অক্টোবর ২০১৭ | আপডেট: ০৯:৪৯ এএম, ২১ অক্টোবর ২০১৭
পাপনের প্যানেল ঘোষণা

আগেই জানা গিয়েছিল, শুক্রবার বিকেলে ঘোষিত হবে সদ্য বিদায়ী বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের প্যানেল। সেই ঘোষণা অনুযায়ী আজ (শুক্রবার) বিকেলে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক পর্ষদ নির্বাচনে বর্তমান সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন তার পছন্দের প্যানেল ঘোষণা করেন।

শুক্রবার বৃষ্টির মধ্যেই শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে বিসিবির লাউঞ্জে সাংবাদিকদের সামনে নাজমুল হাসান পাপন তার প্যানেল ঘোষণা করেন। ২৫ জনের প্যানেলে সে অর্থে কোনই চমক নেই। নতুন মুখও নেই।

মাঝে হাতে গোনা কয়েকটি নাম শোনা গেলেও শেষ পর্যন্ত নাজমুল হাসান পাপন পুরনোদের ওপরই আস্থা রেখেছেন। ঢাকার ক্লাব কোটা, জেলা ও বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা আর জাতীয় ক্রীড়া সংস্থা ও প্লেয়ার্স কোটায় একজন নতুন মুখও নেই।

আগেরবার বিভাগ-জেলা ক্রীড়া সংস্থার কাউন্সিলরদের মধ্য থেকে যারা বোর্ড পরিচালক হয়েছিলেন, তারাই আছেন। ছোট একটি দুইটি রদবদল হয়েছে। আগের কমিটিতে মুন্সিগঞ্জের প্রতিনিধি হয়ে বোর্ড পরিচালক হিসেবে চার বছর ছিলেন মনজুর কাদের।

শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের সভাপতি মনজুর কাদের এবার আর জেলা ও ক্রীড়া সংস্থার কাউন্সিলর হিসেবে নয়, ঢাকার ক্লাব কোটায় পরিচালক পদে নির্বাচন করছেন। তিনিও নাজমুল হাসান পাপনের ক্লাব কোটার প্যানেলের ১২ জনের একজন।

এছাড়া আগেরবার জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের কাউন্সিলর হিসেবে বোর্ডে আসা ইসমাইল হায়দার মল্লিক এবার ঢাকার ক্লাব কোটায় নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ঢাকার ক্লাব কোটায় আগের বোর্ডে ছিলেন অথচ এবার নেই, এমন আছেন মাত্র দু'জন- নাজমুল করিম টিংকু আর আহমেদ ইকবাল হাসান।

প্রসঙ্গতঃ কলাবাগান ক্রীড়া চক্রের কাউন্সিলর হিসেবে আগের চার বছর বোর্ড পরিচালক হিসেবে থাকা নাজমুল করিম টিংকু কয়েক মাস আগে পরলোক গমন করেছেন। আর আহমেদ ইকবাল হাসান আসলে কমিটি থেকে বাদ পড়েছেন। তিনি যে বাদ পড়তে যাচ্ছেন, জাগো নিউজের পাঠকরা তা অবশ্য আগেই জেনে গিয়েছিলেন।

সবাই আছেন, শুধু আহমেদ ইকবাল হাসান এবারের প্যানেলে নেই, কেন? নাজমুল হাসান পাপনের জবাব, 'ইকবাল ভাই গত চার বছর ধরেই বোর্ডে সেভাবে আসেন না। আমাদের সঙ্গে যোগাযোগও কম। তাই আমরা ধরে নিয়েছি, তিনি বোর্ডে থাকার ব্যাপারে উৎসাহী নন। তাই তিনি নেই।'

এছাড়া নাজমুল হাসান পাপন ২৫ জন প্রার্থীর নাম উল্লেখ করেছেন। যেখানে ঢাকা বিভাগ থেকে শুধু সদ্য বিলুপ্ত কমিটির নাইমুর রহমান দুর্জয়কে তার প্যানেলের প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দেয়া হয়েছে। বলার অপেক্ষা রাখে না, ঢাকা বিভাগ থেকে পরিচালক হবেন দু'জন।

আর একজন কে? তার নাম জানাননি পাপন। শুধু বলেছেন, শেখ নাইম ( শেখ সেলিমের পুত্র) তিনিও মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। এছাড়া নারায়ণগঞ্জ জেলা ক্রীড়া সংস্থার টিটুর নামও উল্লেখ করে পাপন বলেন, শুনেছি টিটুও মনোনয়নপত্র তুলেছেন। ঢাকা বিভাগে শুধু নাইমুর রহমান দুর্জয় তার প্যানেলভুক্ত- এমন ঘোষণা দিলেও পাপন জানিয়ে দিয়েছেন, এই বিভাগে আরও তিনজন প্রার্থী হতে পারেন।

পাপনের প্যানেল :
বিভাগ ও জেলা ক্রীড়া সংস্থা ক্যাটাগরি
ঢাকা বিভাগ : নাইমুর রহমান দুর্জয় + ১
চট্টগ্রাম বিভাগ : আ জ ম নাসির, আকরাম খান
খুলনা বিভাগ : শেখ সোহেল, কাজী এনাম
রাজশাহী বিভাগ : শফিউল আলম স্বপন
সিলেট বিভাগ : শফিউল আলম চৌধুরী
বরিশাল বিভাগ : আব্দুল আওয়াল চৌধুরী ভুলু।
রংপুর বিভাগ : অ্যাডভোকেট আনোয়ারুল ইসলাম
প্লেয়ার্স কোটা, ক্যাটাগরি থ্রি : খালেদ মাহমুদ সুজন
জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ কোটা : নাজমুল হাসান পাপন এবং আহমেদ সাজ্জাদুল আলম ববি

ঢাকার ক্লাব কোটার ১২ প্রার্থী
এনায়েত হোসেন সিরাজ, মাহবুব আনাম, আফজালুর রহমান সিনহা, জালাল ইউনুস, মনজুর কাদের, লোকমান হোসেন, হানিফ ভূইয়া, নজিব আহমেদ, তাঞ্জিল আহমেদ চৌধুরী ও শওকত আজিজ রাসেল, ইসমাইল হায়দার মল্লিক, গাজী গোলাম মর্তুজা পাপ্পা।

এআরবি/এমএমআর/আইআই/এমএস