চার ম্যাচেই রিয়াদকে ছাড়িয়ে গেলেন সাকিব

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৩৬ এএম, ১৮ জুন ২০১৯

সমর্থকদের চোখের মণিকোঠায় স্থান পেয়েছেন অনেক আগেই। ভক্তরা তাকে ডাকেন ‘নবাব’ বলে। বল ও ব্যাট হাতে বরাবরই এই শব্দের স্বার্থকতা নিরূপণ করেন সাকিব আল হাসান। অথচ নবাবের নবাবি দেখানোর সবচেয়ে বড় মঞ্চ হওয়ার কথা যেটা সেই বিশ্বকাপের মঞ্চেই এতদিন সাকিবের ছিল না কোনো চোখ ধাঁধানো পারফরম্যান্স।

সেই আক্ষেপ ঘুছানোর জন্য তিনি বেছে নিলেন এবারের বিশ্বকাপকেই। যেবার দলেরও সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন সাকিবের এমন ‘নবাবি’ পারফরম্যান্স। ব্যাট ও বল হাতে দলের যে প্রয়োজন, প্রতি ম্যাচেই পূরণ করছেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার।

বিশ্বকাপে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে আর একবার সাকিব জানান দিলেন নিজের সামর্থ্যের। বল হাতে দুই উইকেট তুলে নেয়ার পর ব্যাট হাতে দ্বিতীয় বাংলাদেশি হিসেবে বিশ্বকাপে টানা দুই সেঞ্চুরি করেছেন সাথে বিশ্বকাপে সবচেয়ে দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ডও গড়েছেন।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ব্যাট হাতে অপরাজিত ৯৯ বলে ১২৪ রানের ইনিংস খেলার পথে অসংখ্য রেকর্ডের জন্ম দিয়েছেন সাকিব আল হাসান। তার মধ্যে এক বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি রানের রেকর্ড গড়েছেন তিনি। এই রেকর্ড গড়তে মাত্র চার ম্যাচ লেগেছে সাকিবের।

২০১৫ সালের বিশ্বকাপে ৬ ইনিংস ৩৬৫ রান করেছিলেন রিয়াদ। এক বিশ্বকাপে যা বাংলাদেশের জন্য ছিল ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রান। এবার মাত্র চার ম্যাচ খেলেই তাকে ছাড়িয়ে গেলেন সাকিব। চার ইনিংসে দুই সেঞ্চুরিসহ ৩৮৪ রান করেছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।

বিএ

আপনার মতামত লিখুন :