বাংলাদেশে কমভিভার ডিজিটাল পেমেন্ট প্ল্যাটফর্ম

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৪৪ পিএম, ০৬ অক্টোবর ২০২১

 

বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ডিজিটাল ফিন্যান্সিয়াল সল্যুশন কোম্পানি কমভিভা বাংলাদেশের বাজারে ডিজিটাল ওয়ালেট ও পেমেন্ট প্ল্যাটফর্ম ‘মোবিকুইটি পে এক্স’ চালু করার ঘোষণা দিয়েছে। সার্কভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ, নেপাল ও ভারতের বিভিন্ন ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে সেবা দিয়ে আসছে প্রতিষ্ঠানটি।

জানা যায়, বাংলাদেশে নিজেদের বাজার সম্প্রসারণ ও ডিজিটাল পেমেন্টস খাতে অংশীদারত্ব বাড়ানোর জন্য এ কৌশলগত সিদ্ধান্তে এসেছে তারা। কমভিভা তাদের মোবিকুইটি পে এক্স প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে ডিজিটাল ফিন্যান্সিয়াল সল্যুশনের সব ধরনে সুবিধা বাড়িয়েছে। যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য উন্নত নিরাপত্তা, দ্রুত সন্নিবেশ ক্ষমতা, কাজের চাপ নেওয়ার সক্ষমতা, সরলীকৃত ব্যবহারকারীর জীবনচক্র ও অভিজ্ঞতা ব্যবস্থাপনা এবং সময় বাঁচানো।

নতুন প্ল্যাটফর্মটি সম্পূর্ণ মাইক্রোসার্ভিস ভিত্তিক স্থাপত্যে সম্পূর্ণ উন্মুক্ত ও পুনঃব্যবহারযোগ্য উপাদান দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। মোবিকুইটি পে এক্সে আছে উন্মুক্ত এপিআই, যা একে সহজেই থার্ড পার্টি সিস্টেমে যুক্ত হতে ও ফিন্যান্সিয়াল ইকোসিস্টেম সম্প্রসারণে সাহায্য করে।

ব্যবহারকারীর অভিজ্ঞতা বাড়ানোর জন্য প্ল্যাটফর্মটি এখন ভোক্তা, এজেন্ট, মার্চেন্ট এবং অন্যান্য ব্যবসায়িক ব্যবহারকারীদের জন্য অত্যাধুনিক সহজবোধ্য মোবাইল অ্যাপ চালু করেছে।

এটি গ্রাহককে সুবিধা অনুযায়ী সহজে পিন, পাসওয়ার্ড ও অ্যাক্সেস প্রক্রিয়া সমন্বিত করে নেওয়ার সুবিধা দিচ্ছে। এর আধুনিক সেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম সব অ্যাকটিভ সেশন ও লগইন ডিভাইস শনাক্ত করে সে অনুযায়ী অ্যাকশন নিয়ে থাকে। ফলে সহজেই প্রতারণা কিংবা জালিয়াতি এড়িয়ে যাওয়া সম্ভব।

বাংলাদেশে কমভিভার কান্ট্রি ম্যানেজার মো. আরিফুজ্জামান বলেন, ‘বাংলাদেশ আমাদের ব্যবসার প্রধান ভিত্তি। কেননা এ অঞ্চলের টেলিকম ও ফিন্যান্সিয়াল ইকোসিস্টেম ও এ সম্পর্কিত বিধিনিষেধ সম্পর্কে আমরা ব্যাপকভাবে ওয়াকিবহাল।’

কমভিভার এন্টারপ্রাইজ বিজনেসের গ্লোবাল হেড ভিভেক আগারওয়াল বলেন, ‘গ্রাহকের চাহিদা এবং জনস্বাস্থ্যকে অগ্রাধিকার দিয়ে বাংলাদেশে যোগাযোগহীন অর্থ আদান-প্রদানে জোর দেওয়া হচ্ছে। আমাদের আধুনিক মোবিকুইটি পে এক্স প্ল্যাটফর্ম আর্থিক পরিষেবা প্রদানকারীদের ডিজিটাল ওয়ালেট এবং পেমেন্ট পরিষেবাগুলোকে দ্রুত এবং নির্বিঘ্নে ব্যবহার করতে সাহায্য করবে।’

এসইউ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]