নারী উদ্যোক্তাদের জন্য নতুন ই-কমার্স মার্কেটপ্লেস আনছে সরকার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:২৫ পিএম, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১

নারী উদ্যোক্তাদের জন্য তৈরি হচ্ছে নতুন ই-কমার্স মার্কেটপ্লেস, গ্রামীণ নারী উদ্যোক্তারা এই প্ল্যাটফর্মে তাদের উৎপাদিত ও সংগৃহীত পণ্য বিক্রি করতে পারবেন।

এ বিষয়ে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ‘তথ্য আপা’ প্রকল্প ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের বাংলাদেশ ফরেন ট্রেড ইনস্টিটিউটের (বিএফটিআই) মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে। এর আওতায়ই এই ই-কমার্স মার্কেটপ্লেসটি তৈরি করা হবে।

বুধবার (৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে সচিবালয়ে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে এ সমঝোতাটি সই হয়। নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে এতে সই করেন ‘তথ্য আপা’ প্রকল্পের পরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব মীনা পারভীন এবং বিএফটিআই-এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আলী আহমেদ।

অনুষ্ঠানে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব কাজী রওশন আক্তার ও বাণিজ্য সচিব ড. মো. জাফর উদ্দীন উপস্থিত ছিলেন।

সচিব কাজী রওশন আক্তার বলেন, মহিলা বিষয়ক মন্ত্রণালয় নারীর ক্ষমতায়নের জন্য বিভিন্ন প্রকার কর্মসূচি ও প্রকল্প বাস্তবায়ন করে চলেছে। এ সমঝোতা স্মারকের মাধ্যমে সে ধরনের আরও একটি নতুন দ্বার উন্মোচিত হচ্ছে।

এই প্রকল্পটি অনেক আগে শুরু হয়েছিল জানিয়ে তিনি বলেন, একটা কাজ করতে অনেক সময় লাগে। তবে সময় লাগলেও আজকে চমৎকার একটি স্মারক তৈরি হয়েছে। আমরা একেবারে প্রত্যন্ত অঞ্চলে তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে নারীদেরকে ক্ষমতায়ন করার জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছি। করোনাকালীন সময়ে ই-কমার্সের যে ব্যাপ্তি, একটা সময় মানুষের জীবন থেমে গিয়েছিল। কিন্তু ই-কমার্সের মাধ্যমে অনেক বড়-বড় সমস্যার সমাধান হয়েছে।

গ্রামীণ মহিলাদেরকে আত্মকর্মসংস্থানের মাধ্যমে স্বাবলম্বী করে তোলা হচ্ছে জানিয়ে সিনিয়র সচিব বলেন, নারীর ক্ষমতায়নের জন্যে একটি অন্যতম শর্ত হলো অর্থনৈতিক মুক্তি। নারীরা যদি এভাবে স্বাবলম্বী হয়, একটা সময় আর সঙ্কট থাকবে না, এ বিষয়ে আমরা আশাবাদী।

তিনি আরও বলেন, আজকে সত্যিই আমাদের জন্য আনন্দের দিন। কারণ একনেকে আমাদের আরও একটি প্রকল্প অনুমোদিত হয়েছে। এর মাধ্যমে দেশের সব জেলায় আমাদের নারী উদ্যোক্তা তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে।

বাণিজ্য সচিব ড. মো. জাফর উদ্দীন বলেন, এই প্রকল্পের নামের মধ্যেই মায়া আছে। এই প্রকল্পের শুরুতে যারা ছিলেন তাদেরকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, গ্রামীণ উদ্যোক্তা ও ভোক্তাদের ই-কমার্সে অন্তর্ভুক্ত করতে ই-কমার্স মার্কেটপ্লেসের জন্য অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন, আইওএস অ্যাপ্লিকেশন ও অন্যান্য সফটওয়্যার তৈরি করা হবে। এক্ষেত্রে সার্বিক সহযোগিতা করবে বিএফটিআই।

অনুষ্ঠানে আরও জানানো হয়, দেশব্যাপী ‘তথ্য আপা’ প্রকল্পের নেটওয়ার্ককে কাজে লাগিয়ে ই-কমার্সকে প্রত্যন্ত অঞ্চলে তৃণমূল নারীদের দোরগোড়ায় পৌঁছানোর লক্ষ্যে ‘তথ্য আপা’রা উপজেলায় উদ্যোক্তা নির্বাচন, তাদের মোটিভেশন প্রদান ও তাদের পণ্য ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মে উপস্থাপন কাজে সহায়তা করবেন।

এ লক্ষ্যে ইতোমধ্যে ৪৯০টি উপজেলায় কর্মরত তথ্য আপাদের ই-কমার্স প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করা হয়েছে। গ্রামীণ নারী উদ্যোক্তারা এই প্ল্যাটফর্মে তাদের উৎপাদিত ও সংগৃহীত পণ্য বিক্রয় করে আর্থিকভাবে লাভবান হবেন। তাদের জীবন যাত্রার মান উন্নয়ন হবে। তাদের আর্থিক ক্ষমতায়ন নিশ্চিত হবে বলেও আশা সংশ্লিষ্টদের।

আইএইচআর/এসএস/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]