আজকের জোকস : তরুণীর কথা শুনে হেঁচকি বন্ধ

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:৫১ এএম, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭

তরুণীর কথা শুনে হেঁচকি বন্ধ

ব্যাংকে টাকা তোলার লাইনে দাঁড়িয়েছে জলিল। তবে বেচারা একদমই স্বস্তিতে নেই। একটু পরপরই তার বিকট শব্দে হেঁচকি উঠছে। পুরো ব্যাংকের মানুষ জলিলের দিকে ফিরে ফিরে তাকাচ্ছে। খুবই বিব্রতকর অবস্থা!

একসময় কাউন্টারের একেবারে কাছে চলে গেল জলিল। ২০ হাজার টাকার চেকটা জমা দিতেই কাউন্টারে বসা মেয়েটি পাংশু মুখে বলল-

মেয়ে : দুঃখিত স্যার, আপনার অ্যাকাউন্টে এত টাকা জমা নেই।

জলিল : বলেন কী! কদিন আগেই পুরো ৫০ হাজার টাকা জমা রেখেছি। তাহলে কত টাকা আছে?

মেয়ে : ২০০ টাকার কাছাকাছি।

জলিল : আপনি কি আমার সঙ্গে মজা করছেন?

মেয়ে : জ্বি স্যার, আপনি নিশ্চয়ই লক্ষ্য করেননি, আপনার হেঁচকি ওঠা বন্ধ হয়ে গেছে!

****

ঘোড়ার ওপর বাজি

এক ঢাকাইয়া তার সাহেবের সাথে রেস খেলা দেখতে গেছে। ঢাকাইয়া তাগড়া দেখে একটি ঘোড়ার ওপর বাজি ধরল। রেস খেলা শুরু হলে দেখা গেল, সেই ঘোড়াটা ছুটছে সবার পেছনে।

এটা দেখে তার সাহেব বলল-

সাহেব : কী মিয়া, কেমন ঘোড়ায় বাজি ধরলেন, ওটা যে সবার পেছনে পড়ে গেল।

ঢাকাইয়া : সাব, ঘোড়া তো নয় যেন বাঘের বাচ্চা। বেবাকগুলিরে খেদাইয়া লইয়া যাইবার লাগছে।

****

ক্যারিয়ারটাই বরবাদ কইরা দিলো

একদিন এক মশা আরেকটি মশাকে বলে-

১ম মশা : এই, তুই বড় হইয়া কী হবি?

২য় মশা : আমি ডাক্তার হমু। তুই কী হবি?

১ম মশা : আমি আমি বড় হইয়া ইঞ্জিনিয়ার হইমু চিন্তা করতাছি।

এসময় একজন এসে অ্যারোসল মারল। তখন মশাগুলো অজ্ঞান হতে হতে বলে উঠল-
মশা : ধুর শালা, ক্যারিয়ারটাই বরবাদ কইরা দিলো।

এসইউ/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :