শরৎচন্দ্র পণ্ডিতের মজার ঘটনা: দেখার জিনিস

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:৩৭ পিএম, ২৬ জুন ২০২২

বাংলা সাহিত্যের এক রসিক লেখক দাদাঠাকুর শরৎচন্দ্র। হাস্যরস ছিল তার জীবনজয়ের মন্ত্র। অসম্ভব চরিত্রের দৃঢ়তা, অনমনীয় মানসিক শক্তি, কঠোর কর্তব্যপরায়নতা। দাদাঠাকুর ছিলেন স্বভাব কবি এবং তীক্ষ্ণধী, সমাজ সচেতন লেখক। তবে দাদাঠাকুর সেসময় সবার কাছে বেশ জনপ্রিয় ছিলেন তার রসবোধের জন্য।

দাদাঠাকুর শরৎচন্দ্র পণ্ডিতের স্ত্রীর একটি পা বাতে পঙ্গু হয়ে গেল। তখন স্ত্রীকে নিয়ে দাদাঠাকুর কলকাতায় এলেন। নলিনীকান্ত তার সঙ্গে দেখা করতে এসে বললেন, বৌদি, কলকাতায় যখন এসেছেন। এখানকার দেখার জিনিসগুলো আপনাকে একদিন দেখিয়ে আনি চলুন। কত কী আছে চিড়িয়াখানা, যাদুঘর, বায়োস্কোপ, থিয়েটার। আপনার খুব ভালো লাগবে।

দাদাঠাকুরের স্ত্রী একথা শুনে হতাশ হয়ে বললেন, ভাই, আমার কী সে ভাগ্য হবে! আমি যে খোঁড়া মানুষ!

একথা শুনে কাছে বসে থাকা দাদাঠাকুর তামাক খেতে খেতে বললেন, বুঝলে নলিনী, এটা তোমার বৌদির লেম একসকিউজ। এ কথা শুনে নলিনীকান্ত হেসে উঠলেন।

লেখা: সংগৃহীত
ছবি: সংগৃহীত

প্রিয় পাঠক, আপনিও অংশ নিতে পারেন আমাদের এ আয়োজনে। আপনার মজার (রম্য) গল্পটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়। লেখা মনোনীত হলেই যে কোনো শুক্রবার প্রকাশিত হবে।

কেএসকে/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।