হাসিমুখে নিজ ক্যাম্পাসে মুশফিক

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ০৯:৫৫ পিএম, ২৮ মার্চ ২০১৮

অনেকদিন পর জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) কিছু ভালো সময় কাটালেন জাতীয় দলের ক্রিকেটার ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩৬ তম আবর্তনের সাবেক ছাত্র মুশফিকুর রহিম। ৩৬ তম ব্যাচের যুগপূর্তি উপলক্ষে আলোচনা, ক্যাম্পাসের স্মৃতি রোমন্থন, শিক্ষকদের সঙ্গে দেখা করা ও এমফিলের বিষয় নিয়ে আলোচনা করতে বুধবার নিজ ক্যাম্পাসে আসেন এই তারকা ক্রিকেটার।

মুশফিকুর রহিমের বন্ধু আবদুল্লাহিল মামুন নিলয় বলেন, সকাল সোয়া ৯টায় প্রধান ফটকে আমি আর মুশফিক নামি। তারপর রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর হলে যাই। কেননা এমফিলের ছাত্র হিসেবে আমাদেরকে সেই হলে এলোট দেয়া হয়েছে। তারপর বটতলা হয়ে আমাদের ভালোবাসার এম এইচ হলে যাই। সেখানে হালিমের দোকানে নাস্তা করি। হলের ছোট ভাইদের সাথে কিছুক্ষণ আড্ডা দিয়ে আমরা নতুন কলা অনুষদের প্রিয় ইতিহাস বিভাগে যাই। সেখানে শিক্ষক ও ছোট ভাই-বোনদের সঙ্গে আনন্দঘন মুহূর্ত অতিবাহিত করি। এর মাঝেই আতিক স্যারের সঙ্গে এমফিলের ক্লাসের ব্যাপারে বিভিন্ন কথা হয়।

musfiq3.jpg

তিনি আরও বলেন, বিভাগ থেকে বিদায় নিয়ে ৩৬ তম ব্যাচের ১১তম বর্ষপূর্তি উদযাপনের বিষয়ে বন্ধুদের সঙ্গে আমাদের আলোচনা ও আড্ডা হয়। সর্বশেষে আমরা উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলামের বাসায় গিয়ে তার সঙ্গে দেখা করে দুপুর পৌনে ১টার দিকে ক্যাম্পাস ত্যাগ করি।

নিজের প্রিয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এসে মুশফিক কতটা আনন্দিত হয়েছেন তা প্রকাশ করেছেন একটি ছবি আর ছোট একটি ক্যাপশন দিয়ে। ফাঁকা রাস্তায় একা হাসিমুখে দাঁড়ানো একটি ছবি নিজের ফেসবুক পেইজে দিয়ে তিনি লিখেছেন, ‘আফটার লং টাইম, স্পেন্ড সাম কোয়ালিটি টাইম টু মাই বিলাভেড ক্যাম্পাস জাহাঙ্গীরনগর ইউনিভার্সিটি!’

musfiq3

মুশফিকুর রহিম এখনও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র। তিনি ইতিহাস বিভাগে অধ্যাপক ড. এ টি এম আতিকুর রহমানের তত্ত্বাবধানে এমফিল করছেন। এমফিলের বিষয় হচ্ছে, ‘ক্রিকেট ইন সাউথ এশিয়া’।

হাফিজুর রহমান/আরএআর/এমএস

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :