শওকত শাওনের অন্যরকম প্রতিবাদ

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০১:১৫ পিএম, ১১ এপ্রিল ২০১৮

দুপুর সোয়া ১২টা, কোটা সংস্কারের দাবিতে মিছিল আর শ্লোগানে মুখরিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ক্যাম্পাস। মাথার উপর প্রখর খরতাপ থাকলেও ক্লান্তিহীনভাবে চলছে শ্লোগান। রাজু ভাস্কর্যের অদূরে দাড়িয়ে ব্যতিক্রমধর্মী প্রতিবাদ জানাচ্ছিলেন চারুকলা অনুষদের পেইন্টিং বিভাগের শেষ বর্ষের ছাত্রী শওকত শাওন। তার প্রতিবাদের ভাষা রঙ আর তুলি।

অয়েল পেইন্টিংয়ের মাধ্যমে শাওন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের মিছিল আর শ্লোগানের পোট্রেট আঁকছিলেন। কখনও কালো, কখনও সাদা আবার কখনও বা সবুজ কিংবা অন্য রঙয়ে মোটা চিকন উভয় প্রকারের তুলির আঁচড়ে ওই মুহূর্তকে ক্যানভাসে ধরে রাখার চেষ্টা করছিলেন।

Saon-2

এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে শাওন জানান, অহিংস উপায়ে সে তার প্রতিবাদ জানাচ্ছে।

উল্লেখ্য সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে গত রোববার থেকে আন্দোলন শুরু করে ঢাবি শিক্ষার্থীসহ চাকরি প্রার্থীরা। পরবর্তীতে সরকারের আশ্বাসে সোমবার সন্ধ্যায় আনুষ্ঠানিকভাবে শেষ হয় ওই আন্দোলন। কিন্তু ওইদিন রাতে সংসদে কৃষিমন্ত্রী আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ‘রাজাকারের বাচ্চা’বলায় এবং মঙ্গলবার সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী ‘বাজেটের আগে কোটা সংস্কারের উদ্যোগ নেয়া সম্ভব নয়’-এমন বক্তব্য দেয়ায় আবারও আন্দোলনে নামেন শিক্ষার্থীরা।

du

এরই ধারাবাহিকতায় পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে বুধবার ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জন করে ঢাবির টিএসসিতে সড়ক অবরোধ করেছেন কোটা সংস্কারে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা। তারা নির্ধারিত সময়ের এক ঘণ্টা আগেই সকাল সাড়ে ১০টা থেকে টিএসসিতে জড়ো হতে থাকেন। পরে টিএসসিতে অবস্থানের পাশাপাশি চারিদিকের সড়কে ব্যারিকেড দিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

সরজমিনে দেখা যায়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) রাজু ভাস্কর্যের সামনে অবস্থানরত শিক্ষার্থীরা কোটা সংস্কারের পক্ষে বিভিন্ন ধরনের প্ল্যাকার্ড প্রদর্শন ও স্লোগান দিচ্ছেন। তারা মঙ্গলবার মধ্যরাতে ঢাবির বেগম রোকেয়া হলসহ বিভিন্ন হলে শিক্ষার্থীদের মারধরের ঘটনার নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করে এ আন্দোলন সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত চলবে বলে জানিয়েছেন।

du

অন্যদিকে ঢাবি সমাজবিজ্ঞান বিভাগের মাস্টার্স সেকেন্ড সেমিস্টারের ফাইনলাল পরীক্ষার ৫৫৬ নম্বর কোর্সে অংশ নেননি শিক্ষার্থীরা। সকাল ৯টা থেকে পরীক্ষা শুরুর কথা থাকলেও শিক্ষার্থীরা এর আগে কলা ভবনের ফটকে পরীক্ষায় অংশ নেবে না বলে স্লোগান দেন। এছাড়া পরীক্ষায় অংশ না নিয়ে কলা ভবনের সামনে কোটা সংস্কারের দাবিতে বিক্ষোভ করছেন তারা।

এমইউ/এমএমজেড/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]