অপহরণের ৫ দিন পর মিলল স্কুলছাত্রের মরদেহ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি কুমিল্লা
প্রকাশিত: ০৩:২৬ পিএম, ২৯ নভেম্বর ২০১৭
অপহরণের ৫ দিন পর মিলল স্কুলছাত্রের মরদেহ

কুমিল্লার হোমনায় রিয়াদ হোসেন নামের এক স্কুলছাত্রকে অপহরণের পর খুন করে মরদেহ গুম করেছে ঘাতকরা। বুধবার বিকেলে স্কুলছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

ঘটনার ৫ দিন পর গ্রেফতার এক ঘাতকের দেয়া তথ্য অনুযায়ী উপজেলার ভাষানিয়া ইউনিয়নের শিবপুর-মাছিমপুর সড়কের মনাইর কান্দি এলাকার রাস্তার পাশ থেকে স্কুলছাত্রের গলিত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত রিয়াদ নিলখী ইউনিয়নের মিরাশ গ্রামের সিরাজ মিয়ার ছেলে এবং স্থানীয় নিলখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণির ছাত্র ছিল। লেখাপড়ার পাশাপাশি সে তার দরিদ্র পরিবারের সহায়তার জন্য ইজিবাইক চালাতো। এ ঘটনায় প্রধান ঘাতকসহ ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, গত ২৫ নভেম্বর শনিবার বিকেলে হোমনা উপজেলার পঞ্চবটি এলাকা থেকে ইজিবাইকসহ দুর্বৃত্তরা রিয়াদ হোসেনকে (১৪) অপহরণ করে নিয়ে যায়।

ওই রাতেই ছিনতাইকৃত ইজিবাইকটি পার্শ্ববর্তী উপজেলা মুরাদনগরের কোম্পানিগঞ্জে বিক্রি করে দেয় এবং অপহরণকারী চক্রের প্রধান ঘাতক জাহাঙ্গীর তার ২ সহযোগীকে নিয়ে রিয়াদকে গলাটিপে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর মরদেহ গুম করে রাখে।

ওই রাতেই ছিনতাইকৃত ইজিবাইকের ৩ ক্রেতা রিয়াদের বাবার কাছে ইজিবাইক ফেরত দেয়ার শর্তে ৭০ হাজার টাকা দাবি করে। এ ঘটনায় রিয়াদের বাবা হোমনা থানায় বিষয়টি অবহিত করে।

পরে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে হোমনা থানা পুলিশ মুরাদনগর থানা পুলিশের সহায়তায় রোববার রাতে মুরাদনগর উপজেলার কোম্পানিগঞ্জ বাজার থেকে ইজিবাইকটি উদ্ধার করে এবং ছিনতাইকৃত ইজিবাইকটি কেনার দায়ে তিনজনকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতাররা হলেন- জেলার দেবিদ্বার উপজেলার শিবনগর গ্রামের সিরাজ মিয়ার ছেলে সাইফুল ইসলাম (২৮), মুরাদনগর উপজেলার উত্তর ত্রিশ গ্রামের ইউনুছ মিয়ার ছেলে হেলাল (২৩) এবং একই গ্রামের বারিক মিয়ার ছেলে খবির হোসেন (২৭)।

এদিকে গ্রেফতারকৃতদের দেয়া তথ্য ও মোবাইল কললিস্টের সূত্র ধরে হোমনা থানা পুলিশ বুধবার সকালে ঢাকা থেকে রিয়াদের হত্যাকারী হোমনা উপজেলার শোভারামপুর গ্রামের রুস্তম আলীর ছেলে জাহাঙ্গীরকে (২৮) গ্রেফতার করে। বিকেলে তার দেখা তথ্য অনুযায়ী রিয়াদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

হোমনা থানার ওসি গোলাম রসুল নিজামী জানান, গ্রেফতার জাহাঙ্গীর ও তার ২ সহযোগী ঘটনার দিন (২৫ নভেম্বর) রাতে রিয়াদকে গলাটিপে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর মরদেহ গুম করেছিল। ঘটনার সঙ্গে জড়িত অপর ঘাতকদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

মো. কামাল উদ্দিন/এএম/জেআইএম