আমি গরিব মানুষ, চিকিৎসা করানোর মতো কোনো টাকা নেই

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি সাতক্ষীরা
প্রকাশিত: ০৫:২৪ এএম, ০৩ জানুয়ারি ২০১৮ | আপডেট: ১০:০৪ এএম, ০৩ জানুয়ারি ২০১৮

আমি গরিব মানুষ, চিকিৎসা করানোর মতো কোনো টাকা নেই। ডাক্তার বলেছে উন্নত চিকিৎসা করালে আমি সম্পূর্ণরূপে ভালো হয়ে যাবো। কিন্তু টাকার অভাবে কোনো চিকিৎসা করাতে পারছি না। মুখ ও কানের উপর বড় টিউমার নিয়ে অসহ্য যন্ত্রণা সহ্য করে বেঁচে আছি। চিকিৎসা করাতে না পারলে আমি মারা যাবো। আপনারা আমাকে বাচাঁন।

এই কথাগুলো বলে মানুষের কাছে সাহায্যের আবেদন করছিলেন সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার ধলবাড়িয়া ইউনিয়নের দাড়িওয়ালা গ্রামের মৃত. রহমত আলী শেখের ছেলে শহর আলী (৫৭)।

মানুষের কাছে সাহায্যের আবেদনকালে জানতে চাইলে শহর আলী জানান, ১৩ বছর আগে মুখে ছোট একটি টিউমার দেখা দেয়। এরপর ৬ মাসের মধ্যে সেটি বিরাট আকার ধারণ করে। পরবর্তীতে ১০ বছর আগে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে অপারেশন করি। তারপরও টিউমারটি সম্পূর্ণ নিরসন না হয়ে আবারও বিরাট আকার ধারণ করে। পুনরায় ডাক্তারদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা বলেন- সম্পূর্ণ নিরসনের জন্য অনেক টাকার প্রয়োজন। আর্থিক সংকটের কারণে আর ডাক্তারের কাছে যাওয়া হয়নি। অতি কষ্টে কোনো রকমে বেঁচে আছি।

স্থানীয় ধলবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ গাজী শওকত আলী জাগো নিউজকে বলেন, পরিবারটি অত্যন্ত গরিব। যার ফলে চিকিৎসা করাতে পারছেন না শহর আলী। ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে চিকিৎসার জন্য কোনো সহায়তা করা হয়নি তবে একটি বয়স্ক ভাতার কার্ড করে দেয়া হয়েছে।

অসহায় মানুষটির চিকিৎসার জন্য যোগাযোগ করা হয় সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন মো. তাওহিদুর রহমানের সঙ্গে। তিনি জাগো নিউজকে বলেন, সরকারিভাবে যদি অপারেশন করা সম্ভব হয় তবে অল্প খরচে হয়ে যাবে। আর যদি এখানে না হয় তবে সব মিলিয়ে ২৫-৩০ হাজার টাকা লাগতে পারে।

তিনি আরও বলেন, আমার এখানে এলে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা সম্ভব কিনা দেখেই বলতে পারবো। তাছাড়া হাসপাতাল থেকেও অসহায় মানুষ হিসেবে সর্বাত্মক সহযোগিতা করা হবে।

অসহায় এ পরিবারের কোনো মোবাইল নম্বর না থাকায় দেয়া সম্ভব হয়নি। তবে তাকে কেউ সহযোগিতা করতে চাইলে যোগাযোগ করতে পারেন জাগো নিউজের এই প্রতিনিধির সঙ্গে। যোগাযোগ: ০১৭১৬ ০৬০৮৩৬

আকরামুল ইসলাম/বিএ