বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে যুবলীগ-ছাত্রলীগের সংঘর্ষ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি ব্রাহ্মণবাড়িয়া
প্রকাশিত: ০৭:১০ পিএম, ১০ জানুয়ারি ২০১৮ | আপডেট: ০৭:১৪ পিএম, ১০ জানুয়ারি ২০১৮

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আয়োজিত জেলা আওয়ামী লীগের জনসভায় চেয়ারে বসাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে।

বুধবার বিকেল পৌনে পাঁচটার দিকে শহরের ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত ভাষা চত্বরে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের দুই নেতার সমর্থকদের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন।

এদের মধ্যে ছয়জন জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। এরা হলেন, আবু আবদুল্লাহ্ (৩২), সাকিব (১৮), আকিব (২৪), আবদুল্লাহ্ (২২), রফিক (৪০) ও তানভীর (২৮)।

Clash-B3

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বিকেল চারটায় ধীরেন্দ্র নাথ দত্ত ভাষা চত্বরে জনসভা শুরু হয়। জনসভা মঞ্চে ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি, সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার, সহ-সভাপতি নায়ার কবির, সহ-সভাপতি তাজ মোহাম্মদ ইয়াছিনসহ আওয়ামী লীগের বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী।

অতিথিদের বক্তব্য চলাকালে পৌনে পাঁচটার দিকে জেলা যুবলীগ নেতা গোলাম মোস্তফা রাফি ও জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মাসুম বিল্লাহ্’র নেতৃত্বে দুটি মিছিল সমাবেশস্থলে আসে। এ সময় চেয়ারে বসাকে কেন্দ্র করে রাফি ও মাসুমের সমর্থকদের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বাধে। সংঘর্ষ চলাকালে উভয়পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ইট-পাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এছাড়া সংঘর্ষকারীরা সমাবেশস্থলের চেয়ার নিয়েও ছোড়াছুড়ি করেন। এ ঘটনায় উভয়পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন।

Clash-B3

সংঘর্ষের পর তাৎক্ষণিক বক্তব্যে সাংসদ র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী বলেন, যারা এ অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটিয়েছে তাদের বিরুদ্ধে দলীয় এবং আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সদর মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নবীর হোসেন জানান, এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের চিহ্নিত করে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আজিজুল সঞ্চয়/এমএএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :