নারী সহকর্মীকে উত্ত্যক্ত, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক বদলি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি ব্রাহ্মণবাড়িয়া
প্রকাশিত: ০৮:৩৯ পিএম, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | আপডেট: ০৮:৪১ পিএম, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নারী সহকর্মীকে উত্ত্যক্তের অভিযোগে জেলা প্রশাসনের এক পদস্থ কর্মকর্তাকে তাৎক্ষণিক বদলি করা হয়েছে।

যোগদানের চার মাসের মধ্যেই অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো. আলমগীর কবিরকে গত ৩০ জানুয়ারি অন্যত্র বদলি করা হয়। গত কয়েকদিন ধরে বিষয়টি টক অব দ্য টাউনে পরিণত হয়েছে। এ নিয়ে জেলা প্রশাসনে এখন তোলপাড় চলছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হিসেবে পদোন্নতি পাওয়ার পর ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় পদায়ন করা হয় আলমগীর কবিরকে। গেল বছরের ২৬ সেপ্টেম্বর ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) হিসেবে যোগদান করেন তিনি।

যোগদানের পর থেকেই আলমগীর কবির সার্কিট হাউসের একটি কক্ষে থাকতেন। সেখানেই বিভিন্ন সময় তার অধীনস্থ নারী সহকর্মীদের ডেকে পাঠাতেন বলে অভিযোগ রয়েছে। এরপর তাদেরকে কুপ্রস্তাব দিয়ে যৌন নিপীড়নের চেষ্টা করতেন।

সম্প্রতি এক উপজেলায় কর্মরত নারী সহকারী কমিশনার আলমগীর কবিরের বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসকের কাছে তাকে উত্ত্যক্ত করার লিখিত অভিযোগ দেন। এরপরই আলমগীর কবিরকে তাৎক্ষণিক বদলি করা হয়।

গত ৩০ জানুয়ারি আলমগীর কবির ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছেড়ে যান। বর্তমানে তিনি ভোলা জেলায় কর্মরত আছেন। তবে নারী সহকর্মীকে উত্ত্যক্তের অভিযোগে বদলির বিষয়টি এক কান দু-কান করতে করতে এখন টক অব দ্য টাউনে পরিণত হয়েছে।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসনের কোনো কর্মকর্তারা মুখ খুলছেন না। তবে সাংবাদিকরা ভোলায় কর্মরত আলমগীর কবিরকে ফোন করে বিষয়টি জানতে চাইলে অভিযোগটি সঠিক নয় বলে দাবি করেন তিনি।

আজিজুল সঞ্চয়/এএম/আইআই

আপনার মতামত লিখুন :