বাগেরহাটে মেরিন ইনস্টিটিউট বন্ধ ঘোষণা, আন্দোলনে শিক্ষার্থীরা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি বাগেরহাট
প্রকাশিত: ০৭:০০ পিএম, ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | আপডেট: ০৭:০১ পিএম, ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

দুর্নীতির অভিযোগে অধ্যক্ষের পদত্যাগের দাবিতে ৪ দিন ধরে শিক্ষার্থীদের লাগাতর আন্দোলনের মুখে বাগেরহাট ইনস্টিটিউট অব মেরিন টেকনোলজি অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

একইসঙ্গে জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর মহাপরিচালক মো. সেলিম রেজার স্বাক্ষরিত চিঠিতে বৃহস্পতিবার বেলা ২টার মধ্যে শিক্ষার্থীদের ছাত্রাবাস ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়।

তবে অধ্যক্ষের অপসারণের বিষয়ে কর্তৃৃপক্ষের কোনো বক্তব্য না থাকায় বিকেল পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা ছাত্রবাসে থেকে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

মেরিন ইনস্টিটিউটের প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে শিক্ষার্থীরা শান্তিপূর্ণভাবে দফায় দফায় বিক্ষোভে মিছিল ও অধ্যক্ষের কুশপুত্তলিকা দাহ করে।

বাগেরহাট মেরিন ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ মো. সিরাজুল ইসলামের বিরুদ্ধে দুর্নীতির ১৭ দফা অভিযোগ এনে সোমবার সকাল থেকে ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে আন্দোলন শুরু করে।

সোমবার সকাল থেকে শিক্ষার্থীরা অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলামের পদত্যাগ দাবি করে স্লোগান দিতে থাকে এবং অধ্যক্ষের কুশপুত্তলিকা দাহ করে শান্তিপূর্ণভাবে লাগাতর আন্দোলন চালিয়ে আসছে।

মেরিন ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থী মাহামুদ শিমুল, আব্দুল্লাহ সবুজ, প্রন্ত চন্দ্র, বাপ্পি জানান, অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলামের বিরুদ্ধে আমরা ১৭টি সুনির্দিষ্ট দুর্নীতির অভিযোগ কর্তৃপক্ষের কাছে দিয়েছি। আমরা শান্তিপূর্ণভাবে অধ্যক্ষে পদত্যাগের দাবিতে আন্দেলন চালিয়ে যাচ্ছি। জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর মহাপরিচালক মো. সেলিম রেজার স্বাক্ষরিত চিঠিতে অধ্যক্ষের অপসারণের বিষয়ে কোনো কথা উল্লেখ নেই। উল্টো আমাদের শিক্ষা জীবনের ক্ষতি করতে বাগেরহাট মেরিন ইনস্টিটিউট অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

সেই সঙ্গে বৃহস্পতিবার বেলা ২টার মধ্যে শিক্ষার্থীদের ছাত্রাবাস ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। দুপুর ১টায় পুলিশ এসে আমাদের ওই চিঠি দিয়েছে। দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আমরা এখানে পড়তে এসেছি। ১ ঘণ্টার মধ্যে ছাত্র-ছাত্রীদের পক্ষে হল ত্যাগ করা সম্ভব নয়। দুর্নীতিবাজ অধ্যক্ষকে অপসারণ না করা পর্যন্ত আমরা হলে থেকে শান্তিপূর্ণভাবে আন্দোলন চালিয়ে যাবো।

শওকত আলী বাবু/এএম/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :