আড়াইহাজারে যুবক-গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৬:৩৪ পিএম, ২৭ মার্চ ২০১৮

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার পৃথক স্থান থেকে গলায় ফাঁস দেয়া এক যুবক ও গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার উপজেলার ব্রাহ্মন্দী সারপাড়া ও বিশ্বনন্দীর চৈতনকান্দা এলাকা থেকে মরদেহ দুটি উদ্ধার ময়নাতদন্তের নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

নিহতরা হলেন- স্বপন মিয়া (৩৫) উপজেলার ব্রাহ্মন্দী ইউনিয়নের ব্রাহ্মন্দী সারপাড়া এলাকার মোন্তাজ মিয়ার ছেলে। আছমা আক্তার (১৯) একই উপজেলার বিশ্বনন্দী ইউনিয়নের চৈতনকান্দা এলাকার তারেক রহমানের স্ত্রী।

আড়াইহাজার থানার ওসি এম এ হক বলেন, উপজেলার ব্রাহ্মন্দী ইউনিয়নের ব্রাহ্মন্দী এলাকায় বাড়ির পাশের একটি আমের গাছ সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় স্বপনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। গাছের অনেক উপর থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে যেখানে কেউ হত্যা করে লাশ সেখানে ঝুলিয়ে রাখাটা বেশ কষ্টকর। তারপরেও বিষয়টি তদন্ত চলছে।

প্রসঙ্গত, গত ১৬ ফেব্রুয়ারি আড়াইহাজারে চোর সন্দেহে দুই যুবককে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন করা হয় যাদের মধ্যে স্বপনও ছিল। পরে পুলিশ তাদের উদ্ধার করে। ওই ঘটনায় এলাকাতে ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

অপরদিকে বিশ্বনন্দী ইউনিয়নের চৈতনকান্দা এলাকা থেকে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় আছমা আক্তারের লাশ উদ্ধার করা হয়। ওসি এম এ হক জানান, বেশ কয়েকমাস ধরেই স্বামী তারেকের সঙ্গে আছমার পারিবারিক কলহ ছিল। সোমবার রাতে এ নিয়ে তাদের মধ্যে বাকবিতাণ্ড হয়। ধারণা করা হচ্ছে কলহের জের ধরেই আছমা আখতার আত্মহত্যা করেছেন।

দুপুরে আড়াইহাজার থানায় পৃথক দুটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে বলে জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।

মো. শাহাদাত হোসেন/আরএ/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :