রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দোকান নিয়ে মারামারি, নারী নিহত

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি কক্সবাজার
প্রকাশিত: ০৯:৪২ পিএম, ২৬ এপ্রিল ২০১৮ | আপডেট: ০৯:৪৪ পিএম, ২৬ এপ্রিল ২০১৮

কক্সবাজারের টেকনাফের নয়াপাড়া ক্যাম্পে রোহিঙ্গাদের দুই পক্ষের সংঘর্ষে আনছার বেগম (৪০) নামে এক নারী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের অন্তত সাতজন আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় ছয় রোহিঙ্গাকে আটক করেছে পুলিশ। এদের মধ্যে তিনজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রনজিত বড়ুয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিহত আনছার বেগম নয়াপাড়া রোহিঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্পের ডি ব্লকের ইলিয়াছের স্ত্রী।

আটকরা হলেন- একই ক্যাম্পের বশির আহমদের ছেলে ইব্রাহিম, ইয়াছিন, সৈয়দ আহমদ, ছালেহ আহমদ ও দিল বাহার।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে ওসি রনজিত বড়ুয়া বলেন, ক্যাম্পে আগে থেকে একটি অস্থায়ী দোকান দিয়েছিল আনছার বেগমের পরিবার। তাদের দোকানের সামনে বশির আহমদের পরিবার নতুন একটি দোকান দেয়ার উদ্যোগ নেয়। কাজ চলাকালীন এনিয়ে দুই পক্ষ বাকবিতণ্ডায় জড়ায়। এক পর্যায়ে তারা সংঘর্ষে জড়িয়ে ধারালো অস্ত্র নিয়ে একে অপরকে আঘাত করে। এতে আনছার বেগম ও তার বাবা গুরুতর আহত হন। আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে টেকনাফ উপজেলা হাসপাতাল ও পরে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে আনা হয়। সেখানেই সন্ধ্যায় আনসার বেগম মারা যান।

ওসি আরও জানান, এ ঘটনায় বশির আহমদের পরিবারের ছয়জনকে আটক করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য আনছার বেগমের মরদেহ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় হত্যা মামলা করে আটকদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে।

সায়ীদ আলমগীর/আরএআর/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :