পঞ্চগড়ে গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি পঞ্চগড়
প্রকাশিত: ০৮:২০ পিএম, ১৭ মে ২০১৮
প্রতীকী ছবি

পঞ্চগড়ের আটোয়ারীতে জোসনা বেগম (৩৭) নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার স্বামী সলেমান আলীর বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার তড়িয়া ইউনিয়নের সুকাতি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পর বাড়ির বাইরে দরজায় তালা দিয়ে পালিয়েছেন স্বামী সলেমান আলী। নিহত জোসনা বেগম তিন সন্তানের জননী। পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, বিয়ের পর থেকেই সলেমান আলী তার স্ত্রীকে নির্যাতন করতো। এ নিয়ে একাধিকবার সালিশ বৈঠক করা হয়। বৃহস্পতিবার বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে সলেমান তার স্ত্রীকে অমানুষিক নির্যাতন করে। মরদেহ উদ্ধারের সময় পাশে ক্রিকেট ব্যাট ও স্টিলের টর্চ লাইট পাওয়া যায়। শরীরের বিভিন্ন স্থানেও আঘাতের চিহ্ন ছিল। পরে তার বড় ছেলে ফরহাদ (১৬) বাড়ির বাইরে তালা দেখে মাকে ডাকতে থাকেন। সাড়া শব্দ না পেয়ে তালা ভেঙে ঘরের বিছানায় মায়ের রক্তাক্ত মরদেহ দেখতে পায় ফরহাদ।

তড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাসান হাবিব আল আজাদ বলেন, সলেমান আলী খারাপ প্রকৃতির মানুষ। সে দীর্ঘদিন ধরেই তার স্ত্রীকে নির্যাতন করতো। এ নিয়ে একাধিকবার সালিশ বৈঠকও হয়েছে। সেই তার স্ত্রীকে হত্যা করে পালিয়েছে।

পঞ্চগড়ের সহকারী পুলিশ সুপার সুদর্শন রায় বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিক সুরতহালে মাথায় আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

সফিকুল আলম/আরএআর/পিআর