নরসিংদীতে বাস-লেগুনার মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৬

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নরসিংদী
প্রকাশিত: ১২:৩১ এএম, ২১ জুলাই ২০১৮

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের নরসিংদীর শিবপুরের কুন্দার পাড়া এলাকায় যাত্রীবাহী বাস ও লেগুনার মুখোমুখি সংঘর্ষে ৬ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ২০ জন। আহতদের মধ্যে ১১ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।

শুক্রবার রাত ৮টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের নরসিংদীর কুন্দার পাড়া নামক স্থানে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনায় নিহতরা সবাই লেগুনার যাত্রী বলে জানিয়েছেন শিবপুর মডেল থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ। তবে নিহতের সংখ্যা আরও বাড়ার আশংকা রয়েছে বলে জানান তিনি।

পুলিশ জানায়, এনা পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস সিলেট থেকে ঢাকা যাচ্ছিল। বাসটি কুন্দারপাড়া নামক স্থানে পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি লেগুনা মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। দ্রুতগামী এনা পরিবহনের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে লেগুনার চালকসহ সামনে বসা তিনজন ঘটনাস্থলেই মারা যান। গুরুতর আহতদের উদ্ধার করে নরসিংদী জেলা হাসপাতালে নেয়ার পর আরও তিনজনের মৃত্যু হয়।

আহতদের মধ্যে মুমূর্ষু অবস্থায় ১২ জনকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। নিহতদের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসাপাতালে রাখা হয়েছে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী পথচারী আমিনুল বলেন, এনা পরিবহনের বাসটি দ্রুত গতিতে যাচ্ছিল। আমি এর পেছন পেছন যাচ্ছিলাম। হঠাৎ দেখি বাসটি ঝাকুনি খাচ্ছে। সঙ্গে সঙ্গে বিকট শব্দ। একটু পরই চারপাশ থেকে চিৎকার ভেসে আসছিল।

অপর প্রত্যক্ষদশী শামীম বলেন, পাঁচদোনার ড্রিম হলিডে পার্ক থেকে বীমা কোম্পানির একটি অনুষ্ঠান শেষে লেগুনাযোগে রায়পুরা বাড়ি ফিরছিল সবাই। কুন্দারপাড়া এলেই দুর্ঘটনার শিকার হয় লেগুনাটি।

শিবপুর মডেল থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ বলেন, মুখোমুখি সংঘর্ষের পর ঘটনাস্থলেই তিনজন মারা যান। হাসপাতালে নেয়ার পর আরও তিনজন মারা যায়। দুর্ঘটনা কবলিত স্থান থেকে এনা পরিবহনের বাসটিকে আটক করা হয়েছে।

সঞ্জিত সাহা/এমবিআর

আপনার মতামত লিখুন :