চা-রুটি খেয়ে ১৩ গরু ব্যবসায়ী অজ্ঞান

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মুন্সীগঞ্জ
প্রকাশিত: ১১:৫৮ এএম, ২১ আগস্ট ২০১৮
ফাইল ছবি

মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার ঐতিহ্যবাহি গরুর হাট সংলগ্ন দোকানে চা-রুটি খেয়ে ১৩ জন গরু ব্যবসায়ী অজ্ঞান হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। দোকানদারকে গ্রেফতার করেছে সদর থানা পুলিশ।

সোমবার দিবাগত রাত ২টার দিকে পঞ্চসার ইউনিয়নের মুক্তারপুর বিসিক এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। গ্রেফতারকৃত দোকানদার মো. ইব্রাহীম মুক্তারপুর এলাকার বাসিন্দা।

মুন্সীগঞ্জ সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা (ওসি) আলমগীর হোসেন জানান, মানিকগঞ্জ থেকে আসা ১৩ জন গরু ব্যবসায়ী স্থানীয় একটি চায়ের দোকানে চা-রুটি খেয়ে অজ্ঞান হয়ে যায়। পরবর্তীতে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, খাবারের সঙ্গে নেশা জাতীয় দ্রব্য ছিল। যা ওই খাবারে মেশানো হয়েছিলো।

তিনি আরও জানান, ঘটনার পরপরই গ্রেফতার করা হয় দোকানদার ইব্রাহীমকে। তার বিরুদ্ধে নেশা জাতীয় দ্রব্য খাবারের সঙ্গে মিশিয়ে অচেতন করে টাকা হাতিয়ে নেয়ার ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। তবে ভুক্তভোগী ব্যবসায়ীদের কারোই টাকা পয়সা আত্মসাৎ করতে পারেনি ওই দোকানদার।

মুন্সীগঞ্জ সদর হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. মুহাম্মদ মুরাদ হোসেন জানান, মুক্তারপুর বিসিক হাট থেকে অজ্ঞান হয়ে আসা ১৩ জন গরু ব্যবসায়ীর মধ্যে ২ জনের অবস্থা গুরুতর। তাদের হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

ভবতোষ চৌধুরী নুপুর/এমএএস/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :