দুই মাসের মাথায় প্রেমিক হলেন ভিলেন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৭:৪০ পিএম, ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮
ফাইল ছবি

প্রেম করে পালিয়ে বিয়ের পর স্বামীর ভাড়া বাসায় গিয়ে দুই মাসের মাথায় লাশ হলেন এক তরুণী। নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লার পূর্ব গোপালনগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

শনিবার দুপুরে ফতুল্লার পূর্ব গোপালনগর এলাকার ভাড়া বাসা থেকে স্ত্রী ফাতেমা খাতুনের (১৮) লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় ফাতেমা খাতুনের স্বামী শাওনকে (২৮) আটক করেছে পুলিশ। মৃত ফাতেমা খাতুন চাঁদপুর উত্তর মতলব থানার ছোট হলদিয়া এলাকার আবুল কাশেমের মেয়ে।

স্ত্রী ফাতেমা খাতুন আত্মহত্যা করেছে স্বামী শাওন এমন দাবি করলেও পুলিশ ও স্থানীয়রা বলছে, এটি আত্মহত্যা নয় বরং হত্যা। স্বামী শাওন ভিলেন। স্ত্রীকে হত্যা করে আত্মহত্যা বলে প্রচার করছে শাওন।

ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ফাতেমা খাতুন বিসিকের একটি গার্মেন্টে চাকরি করার সময় শহরের খানপুর এলাকার মৃত ইসমাইলের ছেলে শাওনের সঙ্গে ৬ মাস আগে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

দুই মাস আগে পরিবারের অজান্তে পালিয়ে বিয়ে করে তারা। পরে পূর্বগোপাল নগর এলাকায় শাওনের খালা তাসলিমার বাড়িতে ওঠে। সেখানে গত দুই মাস ধরে বসবাস করছিল তারা।

এসআই জাহাঙ্গীর আলম বলেন, বিয়ের পর থেকে শাওন নানা অজুহাতে স্ত্রী ফাতেমাকে নির্যাতন করে আসছিল। শনিবার দুপুরে স্ত্রী ফাতেমার ঝুলন্ত লাশ মেলে বাসায়। ফাতেমা আত্মহত্যা করেছে নাকি তাকে হত্যার পর ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। তার শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর মৃত্যুর আসল ঘটনা জানা যাবে। ফাতেমার মৃত্যু নিয়ে রহস্য সৃষ্টি হওয়ায় শাওনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। আমরা বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখছি বলেও জানান এসআই জাহাঙ্গীর আলম।

মো. শাহাদাত হোসেন/এএম/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :