প্রেমিকার সামনে থেকে প্রেমিককে নিয়ে গেল পুলিশ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পাবনা
প্রকাশিত: ০৬:০৪ পিএম, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

স্বর্ণা ও সেলিমের মধ্যে মাত্র ১৫ দিন আগে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। প্রেমিকার কথা মতো মামা ছোটনকে সঙ্গে নিয়ে দেখা করতে আসেন প্রেমিক সেলিম।

কিন্তু বিধিবাম, নির্জন রাস্তায় দাঁড়িয়ে কথা বলার সময় তাদের আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে এলাকাবাসী। পাবনার চাটমোহর উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের মিশন গেট এলাকায় মঙ্গলবার এ ঘটনা ঘটে।

স্বর্ণা খাতুন উপজেলার তেনাপির বটতলা এলাকার সাবান আলীর মেয়ে এবং সেন্ট রিটাস হাইস্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্রী। প্রেমিক সেলিম হোসেন পার্শ্ববর্তী বড়াইগ্রাম উপজেলার নগর গ্রামের আবদুল হান্নান বাবুর ছেলে এবং জোনাইল ডিগ্রি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র। আর ছোটন হোসেন একই উপজেলার দারিকুশি গ্রামের মৃত ময়েজ উদ্দিনের ছেলে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, মাত্র ১৫ দিন আগে স্বর্ণা ও সেলিমের মধ্যে মোবাইলের মাধ্যমে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। স্বর্ণার কথামতো সেলিম গতকাল সকাল ১০টার দিকে তার মামা ছোটনকে সঙ্গে নিয়ে মিশন গেট এলাকায় দেখা করতে আসে। স্বর্ণা স্কুলড্রেস পরিহিত অবস্থায় সেলিমের সঙ্গে চাটমোহর-পাবনা সড়কের পাশে একটি নির্জন জায়গায় দাঁড়িয়ে কথা বলার সময় তাদের আটক করে পুলিশে খবর দেয় এলাকাবাসী।

পরে পুলিশ তাদের তিনজনকে আটক করে স্বর্ণাকে তার পরিবারের জিম্মায় দেয় এবং সেলিম ও তার মামা ছোটনকে থানায় নিয়ে যায়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে চাটমোহর থানার পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) মো. শরিফুল ইসলাম বলেন, সেলিম ও ছোটন নামের দুইজনকে পুলিশি হেফাজতে রাখা হয়েছে। তাদের পরিবারের লোকজনকে খবর দেয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এএম/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :