রাতে রাস্তায় ফেলে গেল ছেলে, মারা গেলেন মা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মাদারীপুর
প্রকাশিত: ০৯:৪৮ পিএম, ১৩ নভেম্বর ২০১৮

ছেলে ও পুত্রবধূ গভীর রাতে রাস্তায় ফেলে যাওয়া বৃদ্ধা মা জোবেদা খাতুন অবশেষে মারা গেলেন। সোমবার রাত সোয়া ৮টার দিকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

মাদারীপুরের সিভিল সার্জন ডা. ফরিদ উদ্দিন মিয়া তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। মঙ্গলবার সকাল ৯টায় শাহমাদার দরগা শরিফ কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

স্থানীয়রা জানান, গত ৩১ অক্টোবর গভীর রাতে মাদারীপুর শকুনী লেক পাড়ের রাস্তায় বৃদ্ধা জোবেদা খাতুনকে ফেলে যায় তার সন্তান ও পুত্রবধূ।

পরদিন (১ নভেম্বর) বিলাস হালদার ও মেহেদী হাসান নামে দুই শিক্ষার্থী সকালে হাঁটতে গিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে তাকে। পরে তারা ওই বৃদ্ধাকে ভর্তি করান মাদারীপুর সদর হাসপাতালে। প্রথম দিন নিজের নাম আর সন্তান-বউ মিলে রাস্তায় ফেলে যাওয়ার কথাটুকু বলতে পারলেও তারপর থেকে আর কথা বলতে পারেননি এই বৃদ্ধা।

১১ দিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকার পর সোমবার রাতে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। রাত সোয়া ৮টার দিকে তিনি মারা যান। তার মৃত্যুর ঘটনার দ্রুত ছড়িয়ে পড়লে সিভিল সার্জন, সমাজসেবা কর্মকর্তা ও মাদারীপুর পৌরসভা কর্তৃপক্ষ ছুটে যান হাসপাতালে। পরে প্রশাসনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মঙ্গলবার সকাল ৯টায় শাহমাদার দরগা কবরস্থানে জোবেদা খাতুনকে দাফন করা হয়।

মাদারীপুর সিভিল সার্জন ডা. ফরিদ উদ্দিন মিয়া বলেন, গত ১১ দিন মাদারীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার রাতে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। গত রাতে তিনি মারা যান। তাকে দাফন করা হয়েছে।

এ কে এম নাসিরুল হক/এএম/আরআইপি

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]