বেঁধে রাখা হয়েছে বিরল প্রজাতির মদনটাক পাখি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ঝিনাইদহ
প্রকাশিত: ০৬:৫৬ পিএম, ৩১ জানুয়ারি ২০১৯

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় বিলুপ্ত প্রায় বিরল প্রজাতির একটি মদনটাক পাখি রশি দিয়ে বেঁধে বাড়িতে আটকে রাখা হয়েছে। উপজেলার দামুকদিয়া গ্রামের কৃষক বিপুল মোল্লা তার বাড়িতে পাখিটি রেখেছেন।

প্রতিদিন গ্রামাঞ্চলের অসংখ্য মানুষ এই বিরল পাখিটি দেখতে তার বাড়িতে ভিড় করছে। তবে কয়েকদিন আটকে রাখায় প্রায় ৪ ফুট উচ্চতার পাখিটির শরীর ক্রমেই ভেঙে পড়ছে। উড়তে পারছে না পাখিটি, এমনকি হাঁটতেও পারছে না। পায়ে দেখা গেছে আঘাতের চিহ্ন। পাখিটির সুচিকিৎসাসহ দ্রুত উদ্ধার করে অবমুক্ত না করলে যে কোনো সময় মারা যাওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে । গত সোমবার (২৮ জানুয়ারি) থেকে পাখিটি বেঁধে রাখা হয়েছে। ওই দিন বিকেলে গ্রামের গাছে এসে পাখিটি বসে। এরপর সন্ধ্যার দিকে অতিউৎসাহী কিছু মানুষ বাঁশ দিয়ে খোঁচা ও জালের ফাঁদে ফেলে পাখিটি ধরে ফেলে।

দামুকদিয়া গ্রামের সুমন মোল্লা জানান, তারা আগে এমন পাখি দেখেননি।

Modontak

পাখিটি পোষ মানানোর চেষ্টাকারী বিপুল মোল্লা বলেন, পাখিটি গ্রামের এগাছ থেকে ওগাছে বসে থাকলেও উড়তে পারছিল না। প্রাথমিক চিকিৎসাসহ প্রতিদিন মাছ খাইয়ে পাখিটিকে সুস্থ্য করে রেখে দিতে চাই।

তবে বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ খুলনার একটি টিম পাখিটি উদ্ধার করবে বলে জানা গেছে ।

আব্দুল্লাহ আল মাসুদ/আরএআর/পিআর