সুন্দরবনে ৪টি কুমির অবমুক্ত

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি বাগেরহাট
প্রকাশিত: ০৫:৪০ পিএম, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

সুন্দরবনে কুমিরের প্রজনন ও বংশবৃদ্ধির লক্ষ্যে বিলুপ্তপ্রায় লবণ পানি প্রজাতির চারটি কুমির অবমুক্ত করা হয়েছে। শনিবার দুপুরে সুন্দরবনের ভদ্রা নদীতে ৯ বছর বয়সের একটি পুরুষ ও তিনটি নারী কুমির অবমুক্ত করেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ুবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার।

এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন- খুলনা বিভাগীয় বন সংরক্ষক (সিএফ) মো. আমির হোসাইন চৌধুরী, বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মো. মাহমুদুল হাসান ও সুন্দরবনের করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আজাদ কবির।

বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আজাদ কবির বলেন, বিলুপ্তপ্রায় লবণ পানির প্রজাতির কুমিরের প্রজনন ও বংশবৃদ্ধির লক্ষ্যে সুন্দরবনে করমজল কুমির প্রজনন কেন্দ্রের চারটি কুমির অবমুক্ত করা হয়েছে। এর আগেও সুন্দরবনে বিভিন্ন নদ-নদীতে ৯১টি কুমির অবমুক্ত করা হয়। বিলুপ্তপ্রায় এ প্রজাতির কুমিরের প্রজনন ও বংশ বিস্তারের উদ্দেশ্যে ২০০০ সালে সুন্দরবনের করমজলে দেশের একমাত্র কুমির লালন-পালন ও প্রজননকেন্দ্র গড়ে তোলে বন বিভাগ।

২০০৫ সালে করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রের কুমির রোমিও ও জুলিয়েট জুটির ডিম থেকে বাচ্চা ফুটতে শুরু করে। বর্তমানে করমজল কুমির প্রজননকেন্দ্রে ছোট বড় মিলিয়ে রয়েছে ২০৩টি কুমির।

শওকত আলী বাবু/এএম/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :