ফেনীতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আ.লীগের ৯ প্রার্থী জয়ী

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফেনী
প্রকাশিত: ০৮:২৪ পিএম, ১৪ মার্চ ২০১৯

ফেনীতে আগামী ৩১ মার্চ অনুষ্ঠিতব্য উপজেলা নির্বাচনে কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী না থাকায় আওয়ামী লীগ সমর্থিত ৫ চেয়ারম্যান ও ৪ ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ও রিটার্নিং কর্মকর্তা পিকেএম এনামুল করিম এবং জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. নাছির উদ্দিন পাটোয়ারী তাদের নাম ঘোষণা করেন। ফেনীর ৬টি উপজেলার ৫টিতে চেয়ারম্যান পদে ও পরশুরাম উপজেলায় কোনো পদেই নির্বাচন হচ্ছে না।

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিতরা হলেন- পরশুরামে চেয়ারম্যান পদে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন মজুমদার, ফুলগাজীতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান চেয়ারম্যান আবদুল আলিম, ছাগলনাইয়ায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান চেয়ারম্যান মেজবাউল হায়দার চৌধুরী সোহেল, দাগনভূঞায় জেলা যুবলীগের সভাপতি ও বর্তমান চেয়ারম্যান মো. দিদারুল কবির রতন ও সোনাগাজীতে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা জহির উদ্দিন মাহমুদ লিফটন নির্বাচিত হয়েছেন।

ভাইস চেয়ারম্যান পদে ফেনী সদর উপজেলায় জেলা আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক একেএম শহীদ খোন্দকার ও ফেনী সদর উপজেলা মহিলা লীগের সভাপতি জোসনা আরা বেগম জুসিকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘোষণা করা হয়। একইভাবে পরশুরামে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এনামুল করিম মজুমদার বাদল, মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী সামছুন নাহার পাপিয়া একক প্রার্থী হওয়ায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

জেলা নির্বাচন অফিস সূত্র জানায়, আগামী ৩১ মার্চ অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে পরশুরাম উপজেলায় চেয়ারম্যানসহ সবকটি পদে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী না থাকায় তিনজনই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন।

ফেনী সদর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠত হবে। এখানে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান চেয়ারম্যান আবদুর রহমান বিকমের সঙ্গে সাবেক যুবলীগ নেতা আজহারুল হক আরজু। ভাইস চেয়ারম্যান পদে দুই প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন।

ফুলগাজী উপজেলায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আবুল আলম আজমীর ও স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান অনিল বনিক, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে জেলা আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মঞ্জুরা আজিজ ও স্বতন্ত্র প্রার্থী বিবি মরিয়ম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

ছাগলনাইয়া উপজেলায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মো. এনামুল হক মজুমদার, স্বতন্ত্র প্রার্থী জসিম উদ্দিন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে জেলা আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বিবি জোলেখা শিল্পী, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নাছিমা আক্তার, আরমিনা ফেরদৌস প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

দাগনভূঞা উপজেলায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মোহাম্মদ শাহীন মুন্সি ও উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট কাজী রবিউল হক রবি, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে জেলা আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী রোকসানা আক্তার সিদ্দিকী ও জাতীয় মহিলা পার্টির নেত্রী ফারহানা নিগার সুলতানা আইরিন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

সোনাগাজী উপজেলায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে জেলা আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সাখাওয়াতুল হক বিটু ও স্বতন্ত্র প্রার্থী দীন মোহাম্মদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে জেলা আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী জোবেদা নাহার মিলি ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মোর্শেদা আক্তার নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

এর আগে ৪ মার্চ ফেনীর ৬টি উপজেলায় ৩৯ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। পরবর্তীতে ৬ মার্চ বাছাই ও ১৩ মার্চ মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের পর ১৯ জন প্রার্থী বিভিন্ন পদে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. নাছির উদ্দিন পাটোয়ারী জানান, প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। ৩১ মার্চ নির্বাচন আয়োজনের সব ধরণের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে বলেও তিনি জানান।

রাশেদুল হাসান/আরএআর/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :