রাতেই ভোটের অভিযোগে বর্জন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি রাঙ্গামাটি
প্রকাশিত: ১২:৫৪ পিএম, ১৮ মার্চ ২০১৯

রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ির পর নানিয়ারচর উপজেলায়ও ভোট বর্জন করেছেন তিন চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ ভাইস চেয়ারম্যান পদের সাত প্রার্থী। ভোট বর্জন করে নির্বাচন স্থগিতের আবেদন করেছেন তারা।

সকাল ১০টায় ব্যাপক ভোট জালিয়াতি, রাতে ভোটগ্রহণ এবং দিনে বিভিন্ন কেন্দ্রে ভোটারদের আসতে না পারার অভিযোগ এনে বাঘাইছড়িতে চেয়ারম্যান প্রার্থী বড়ঋষি চাকমাসহ চার ভাইস চেয়ারম্যানের নির্বাচন বর্জনের পর বেলা সাড়ে ১১টায় নানিয়ারচর উপজেলাতেও ভোট বর্জনের ঘটনা ঘটে ।

নানিয়ারচর উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী রূপম দেয়ান অভিযোগ করেছেন, রাতেই বেশিরভাগ কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শেষ হয়ে গেছে এবং দিনের বেলায় আমরা ও আমাদের ভোটাররা কেন্দ্রেই যেতে পারছি না। সঙ্গত কারণেই নির্বাচনে থাকার কোনো মানে নেই। তাই আমিসহ তিন চেয়ারম্যান প্রার্থী এবং চার ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ভোট বর্জন করে নির্বাচন থেকে সরে গেলাম।

তিনি আরও জানান, চেয়ারম্যান প্রার্থী জন্টিনা চাকমা, পঞ্চানন চাকমাও নির্বাচন বর্জন করেছেন। বর্জনকারী ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন- রণ বিকাশ চাকমা, সুজিত তালুকদার, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কোয়ালিটি চাকমা ও কণিকা চাকমা।

নানিয়াচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাসউদ পারভেজ মজুমদার বলেন, তিন চেয়ারম্যান ও চার ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী নির্বাচন স্থগিত করার জন্য আমার কাছে একটি আবেদন জমা দিয়েছেন। বিষয়টি আমি রিটার্নিং অফিসারকে জানিয়েছি।

প্রসঙ্গত,নানিয়ারচর উপজেলায় পাঁচজন প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এদের মধ্যে রূপম দেওয়ান এবং বর্তমান চেয়ারম্যান প্রতি চাকমা দুজনই পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির ( এমএল লারমা) প্রার্থী হিসেবে নিজদের প্রচার ও দাবি করে আসছিলেন। এই উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে জাতীয় দলগুলোর কোনো প্রার্থী নেই।

সাইফুল/আরএআর/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]