‘জাল ভোট দিতে আসলে পরিবার থেকে বিদায় নিয়ে আসবেন’

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৭:১৩ পিএম, ১৮ মার্চ ২০১৯

‘নির্বাচনের দিন যে হাতে জাল ভোট দিতে আসবেন সেই হাত ভেঙে গলায় ঝুঁলিয়ে দেয়া হবে। আগের দিন রাতে কেউ যদি চিন্তা করেন জাল ভোট দিতে আসবেন, তবে পরিবারের কাছ থেকে বিদায় নিয়ে আসবেন। তাদের আর বাড়িতে ফিরে যেতে দেয়া হবে না। সোজা জেলহাজতে পাঠানো হবে।,

আগামী ৩১ মার্চ অনুষ্ঠিতব্য নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন নিয়ে সোমবার বিকেলে উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত আইনশৃঙ্খলা সভায় সোনারগাঁ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান এসব কথা বলেন।

প্রার্থীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, যারা মাদক ব্যবসায়ী ও সন্ত্রাসীদের নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় নেমেছেন তাদেরকে দ্রুত পরিহার করুন। অন্যথায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীদের দেখে কেউ ভোট দেয় না। নির্বাচনের সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশ নষ্ট করলে যে যতই শক্তিশালী হোক না কেন তাদের গ্রেফতার করা হবে। কোনো প্রার্থী এলাকায় প্রতিপক্ষের সঙ্গে মারামারিতে লিপ্ত হতে পারবেন না। যদি কেউ এ ধরনের ঘটনা ঘটান তাদের কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অঞ্জন কুমার সরকারের সভাপতিত্বে উপজেলা পরিষদ সভা কক্ষে আয়োজিত এ সভায় অন্যান্যের মধ্যে নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (খ -অঞ্চল) খোরশেদ আলম, সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাচন অফিসার মো. জসিমউদ্দিন, সোনারগাঁ থানার ওসি (অপারেশন) আলমগীর হোসেন, সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী ও সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান কালাম, আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মোশারফ হোসেনের পক্ষে তার ভাই মোগরাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আরিফ মাসুদ বাবু, ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী আবু নাইম ইকবাল, শাহজালাল, বাবুল ওমর, এম জাহাঙ্গীর হোসেন ভূইয়া, শাহ আলম রূপন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাসিমা আক্তার, মাহমুদা আক্তার ফেন্সি, হেলেনা আক্তার, ফরিদা পারভীন শ্যামলী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

শাহাদাত হোসেন/আরএআর/এমএস