১০ হাজার টাকা চুক্তিতে খুন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সুনামগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৩:৪০ পিএম, ২৭ মার্চ ২০১৯

হাওর বাঁচাও, সুনামগঞ্জ বাঁচাও আন্দোলনের সদর উপজেলা কমিটির যুগ্ম-আহ্বায়ক আজাদ মিয়া (৪৭) হত্যাকাণ্ডের অন্যতম হোতা মো. শ্রাবনুজ্জামান শ্রাবণকে (২৯) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার বিকেলে সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার কুরবাননগর ইউনিয়নের ব্রাহ্মণগাঁ এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বুধবার তাকে সাংবাদিকদের সামনে হাজির করে পুলিশ।

গ্রেফতারের পর সুনামগঞ্জ পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। গ্রেফতারকৃত শ্রাবনুজ্জামান শ্রাবণ এ হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা কথা স্বীকার করেছেন। পরে তার স্বীকাররোক্তি অনুযায়ী হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত স্টিলের পাইপ ও পোশাক উদ্ধার করে পুলিশ।

১৪ মার্চ রাত ১০টার দিকে সুনামগঞ্জ পৌর শহরের পিটিআই এলাকায় দুর্বৃত্তদের অতর্কিত হামলার শিকার হন হাওর বাঁচাও, সুনামগঞ্জ বাঁচাও আন্দোলনের সদর উপজেলা কমিটির যুগ্ম-আহ্বায়ক আজাদ মিয়া। স্থানীয়রা তাকে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে অবস্থা গুরুতর হওয়ায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। ১৭ মার্চ সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান আজাদ।

সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার বরকতুল্লাহ খান বলেন, হাওর বাঁচাও, সুনামগঞ্জ বাঁচাও আন্দোলনের সদর উপজেলা কমিটির যুগ্ম-আহ্বায়ক আজাদ মিয়া হত্যাকাণ্ডের অন্যতম হোতা মো. শ্রাবনুজ্জামান শ্রাবণকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ হত্যাকাণ্ডে ১০ হাজার টাকা চুক্তি হয়েছে। ১০ হাজার টাকা চুক্তিতে শ্রাবনুজ্জামান শ্রাবণকে ভাড়া করা হয়। তবে কে-বা কারা তাকে ভাড়া করেছে সেটি নিয়ে তদন্ত চলছে। যারা এ ঘটনায় জড়িত তাদের সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে।

সুনামগঞ্জ পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সংবাদ সম্মেলনে এ সময় উপস্থিত ছিলেন- অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তারেক আহমদ প্রমুখ।

এএম/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :