ঈশ্বরদীতে দুই বাংলার কবিদের মিলনমেলা

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি ঈশ্বরদী (পাবনা)
প্রকাশিত: ০৮:৩২ এএম, ১৬ এপ্রিল ২০১৯

পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার সাহাপুর ইউনিয়নের চর গড়গড়ি গ্রামে তিন দিনব্যাপী চলছে ‘চরনিকেতন বৈশাখী উৎসব ও বাংলা সাহিত্য সম্মেলন’। ওপার-এপার বাংলার কবি-সাহিত্যিকদের অংশগ্রহণে মিলনমেলায় পরিণত হয়েছে চরনিকেতন কাব্যমঞ্চ। আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এ উৎসব শেষ হবে।

গতকাল সোমবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত সারাদেশের অর্ধ শতাধিক কবি এবং ওপার বাংলা কলকাতার ১৪ জন কবি সাহিত্যিকদের মতবিনিময় ও প্রাণবন্ত আড্ডায় সম্মেলনে উৎসবমুখর পরিবেশ সৃষ্টি হয়। এর আগে রোববার (১৪ এপ্রিল) বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা, গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী লাঠি খেলাসহ গ্রামীণ সংস্কৃতির মধ্য দিয়ে তিন দিনব্যাপী এই বৈশাখী উৎসব ও বাংলা সাহিত্য সম্মেলন শুরু হয়।

বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ওসাকার সার্বিক পরিচালনায় চরনিকেতন কাব্যমঞ্চের এই আয়োজনের উদ্বোধন করেন বাংলা একাডেমীর পুরস্কারপ্রাপ্ত খ্যাতিমান কবি আসলাম সানী।

JANODABI01

অনুষ্ঠানে পাবনার জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন, পাবনার পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম, পাবনা প্রেসক্লাবের সভাপতি অধ্যাপক শিবজিৎ নাগ, ঈশ্বরদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহাম্মদ হোসেন ভূঁইয়া, সংবাদপত্র পরিষদের সভাপতি আব্দুল মতিন খান, ঈশ্বরদী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাহাউদ্দীন ফারুকী, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ কাজী মিনহাজুল আলম, ওসাকার চেয়ারম্যান সাংবাদিক আক্তারুজ্জামান আকতার প্রমুখ।

তিন দিনব্যাপী নানা আয়োজনে বৈশাখী উৎসব ও বাংলা সাহিত্য সম্মেলনে নানা অনুষ্ঠানের পাশাপাশি কবিতা পাঠ, বিষয়ভিত্তিক সেমিনারসহ নানা ধরনের ব্যতিক্রমী আয়োজন রয়েছে। এছাড়াও সমাপনী দিনে সম্মাননা পুরস্কার, দেশ- বিদেশের কবি -লেখক আলোচক সংগীত শিল্পীরা নানা আয়োজনে অংশগ্রহণ করবেন। সম্মেলনকে ঘিরে কবি ও সাহিত্যিকদের বই আর বিভিন্ন প্রদর্শনীর বিভিন্ন স্টল বসেছে। এছাড়াও রাস্তার পাশে বসেছে মুড়ি-মুড়কির বিভিন্ন দোকান। সেখানে বিক্রি হচ্ছে খৈ, মুড়ি, বাতাসা, জিলাপি, মটকাসহ বাহারি সব গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহী খাবার। পুরো গ্রাম জুড়ে উৎসবের আমেজ সৃষ্টি হয়েছে। দিনভর চলছে এপার-ওপার বাংলার কবিদের স্বরচিত কবিতা পাঠের আসর, ফাঁকে ফাঁকে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

তিন দিনব্যাপী বৈশাখী উৎসব ও সাহিত্য সম্মেলনে অংশ নিয়েছে- ভারতের কবি, দীপক লাহিড়ী, চিত্রা লাহিড়ী, দেবারতি ভট্টাচার্য, সোমাভদ্র রায়, গার্গী সেনগুপ্ত, শশী সরকার, এষা বিশ্বাস, মানসী কীর্তনিয়া, সঞ্চয় রায় সহ অনেকে। এবং বাংলাদেশের কবি আসলাম সানী, কথাশিল্পী আলী ইমাম, কুদরত-ই-হুদা, সোহাগ সিদ্দিকীসহ অনেকেই।

JANODABI02

বৈশাখী উৎসব ও সাহিত্য সম্মেলনের উদ্যোক্তা কবি, গবেষক ও চরনিকেতন কাব্যমঞ্চের পরিচালক মজিদ মাহমুদ বলেন, দীর্ঘ ২৫ বছর ধরে আমি আমার গ্রাম-বাংলাকে তুলে ধরার জন্য কাজ করছি। বাংলা সাহিত্য, বাঙালি সংস্কৃতি ও দেশের মানুষের জন্য কিছু করতে পারা অনেক গর্বের ও আনন্দের।

আলাউদ্দিন আহমেদ/আরএআর/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :