সোনাগাজীর সেই মাদরাসায় নতুন কমিটি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফেনী
প্রকাশিত: ০৪:২৮ এএম, ২৪ এপ্রিল ২০১৯

সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদরাসার ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যার ঘটনায় ওই মাদরাসার আগের গভর্নিং কমিটি বাতিল করে নতুন পাঁচ সদস্যবিশিষ্ট অ্যাডহক কমিটি গঠন করা হয়েছে। মঙ্গলবার ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্দেশনা মোতাবেক উক্ত কমিটি অনুমোদনের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারের নিকট প্রেরণ করা হয়েছে।

ছয় মাস মেয়াদি এই কমিটিতে ফেনীর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সুজন চৌধুরীকে সভাপতি, ওই মাদরাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ হোসাইনকে সদস্য সচিব, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. নূরুল আমিনকে শিক্ষানুরাগী সদস্য, মাওলানা শেখ ফরিদকে শিক্ষক প্রতিনিধি ও ডা. মোহাম্মদ শাহ আলমকে দাতাসদস্য করা হয়েছে।

অ্যাডহক কমিটি গঠনের সত্যতা নিশ্চিত করে এ বিষয়ে মাওলানা মোহাম্মদ হোসাইন বলেন, পাঁচ সদস্যবিশিষ্ট অ্যাডহক কমিটি অনুমোদনের জন্য ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে, ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয় একটি চিঠির মাধ্যমে পূর্বের ১৩ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি বিলুপ্ত করে পাঁচ সদস্যবিশিষ্ট একটি অ্যাডহক কমিটি গঠন করার নির্দেশ দেয়া হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর ড. আহছান উল্লাহ স্বাক্ষরিত ওই চিঠি ১৮ এপ্রিল অধ্যক্ষের কাছে আসার পর মঙ্গলবার অ্যাডহক কমিটি গঠন করা হয়।

সোনাগাজীতে মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে যৌন নিপীড়নের পর হত্যাকাণ্ডে মাদরাসা কমিটির একাধিক সদস্যের জড়িত থাকার অভিযোগ ওঠে। হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে মাদরাসা পরিচলানা কমিটির কমিটির সহ-সভাপতি রুহুল আমিন এবং সদস্য ও হত্যা মামলার এজহারভুক্ত আসামি কাউন্সিলর মকসুদ আলমকে গ্রেফতার করেছে পিবিআই।

এর আগে টানা পাঁচ দিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে ১০ এপ্রিল রাত ৯টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে মারা যান অগ্নিদগ্ধ নুসরাত জাহান রাফি। পরদিন সকালে ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ স্বজনদের বুঝিয়ে দিলে বিকেলে সোনাগাজী পৌরসভার উত্তর চরচান্দিয়া গ্রামের পারিবারিক কবরস্থানে তাকে সমাহিত করা হয়।

রাশেদুল হাসান/বিএ

আপনার মতামত লিখুন :