মিস্ত্রির সততায় সোয়া দুই লাখ টাকা ফিরে পেলেন শিক্ষক

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক রাজশাহী
প্রকাশিত: ০৯:৪৪ পিএম, ৩০ এপ্রিল ২০১৯

ইলেকট্রিক মিস্ত্রির সততায় মালিক ফিরে পেলেন চেকসহ ব্যাগভর্তি সোয়া দুই লাখ টাকা। মঙ্গলবার বেলা আড়াইটার দিকে হারিয়ে যাওয়া ২ লাখ ২১ টাকা ভর্তি ব্যাগটি মালিককে ফিরিয়ে দেন ইলেকট্রিক মিস্ত্রি পুতুল।

পুতুল নগরীর গণকপাড়া এলাকার বাসিন্দা। তিনি সেখানকার একটি কেবল অপারেটর প্রতিষ্ঠানের কর্মী। নগরীর সাহেব বাজারে ইলেকট্রিক সরঞ্জামনের দোকান আছে তার। নগরীর ১২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসান আলীর মাধ্যমে মালিককে ফেরত দেন এ টাকার ব্যাগ।

পুতুল জানান, দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে দোকানে ফ্যান ঠিক করতে আসেন রজব আহমেদ। যাওয়ার সময় তিনি তার সঙ্গে থাকা ব্যাগটি ফেলে যান। পরে ব্যাগের ভেতরে ২ লাখ ২১ হাজার টাকা, চেক বই এবং বেশ কিছু প্রয়োজনীয় কাগজপত্র পান পুতুল।

পরে ব্যাগের ভেতরে থাকা মোবাইল নম্বরে মালিকের সঙ্গে যোগাযোগ করেন তিনি। স্থানীয় ১২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসান আলীর উপস্থিতিতে মালিককে ফিরিয়ে দেন সেই টাকার ব্যাগ।

পুতুল বলেন, টাকাভর্তি ব্যাগের মালিককে তার সম্পদ ফিরিয়ে দিতে পেরে আমার খুব ভালো লাগছে। হতে পারে সেটা তার কষ্টের টাকা, প্রয়োজনের টাকা।

টাকাভর্তি ব্যাগটির মালিক রজব আহমেদ রাজশাহী বরেন্দ্র ইউনিভার্সিটির শিক্ষক ও নগরীর লক্ষ্মীপুরে অবস্থিত গ্রীন ডেল্টা ডায়াগস্টিক সেন্টারের মালিক।

রজব আহমেদ জানান, দুপুরে তার বাড়ির ফ্যান ঠিক করতে গিয়ে নগরীর সাহেব বাজারের একটি দোকানে তার টাকার ব্যাগটি ভুলে রেখে চলে যান। কর্মব্যস্ততার জন্য তিনি মনে করতে পারছিলেন না কোথায় রেখেছেন টাকার ব্যাগ। পরে সৎ ইলেকট্রিক মিস্ত্রির ফোন কলের মারফতে তিনি জানতে পারেন ব্যাগটি তার দোকানে রেখে গেছেন। পরবর্তীতে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা ও কয়েকজনের উপস্থিতিতে সেটি ফিরে পান তিনি।

ফেরদৌস সিদ্দিকী/এএম/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :