ব্রিজের কাজ দেখে ঠিকাদারকে নোটিশ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি রাজবাড়ী
প্রকাশিত: ১০:২৫ এএম, ১৫ মে ২০১৯

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার নারুয়া ইউনিয়নের খালিয়া গ্রামে খালের ওপর ব্রিজ নির্মাণে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার বিকেলে সরেজমিন গিয়ে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নাসরিন সুলতানা কাজের ত্রুটি সংশোধনের পর কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন। একইসঙ্গে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করেছেন।

এলাকাবাসী ও উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয়ের তত্ত্বাবধানে উপজেলার নারুয়া ইউনিয়নের খালিয়া গ্রামের জামাল মেম্বারের বাড়ির সামনে খালের ওপর ৩২ লাখ টাকা ব্যয়ে মেসার্স রহিমা এন্টারপ্রাইজ ব্রিজ নির্মাণ কাজ শুরু করে। কাজের শুরুতেই নানা অনিয়ম ও নিন্মমানের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহারের অভিযোগ ওঠে। ব্রিজ নির্মাণ কাজে ৩-৪ শতাংশ কালো পাথর দেয়ার কথা থাকলেও দিচ্ছে সাদা পাথর। ৭০ শতাংশ ৩-৪ শতাংশ ও ৩০ শতাংশ ভাঙা পাথর দেয়ার কথা থাকলেও দিচ্ছে ৩/৪ শতাংশ। ঢালাই কাজে ১ বস্তা সিমেন্ট, ১/২ বস্তা বালি, ৩ বস্তা পাথর দেয়ার কথা থাকলেও দিচ্ছে ১ বস্তা সিমেন্ট, ৪ বস্তা বালি ও ৮ বস্তা পাথর।

Rajbari

এছাড়া ওয়ালের বাউন্ডারি ১২ মি.লি. রড ৬ ইঞ্চি পর পর দেওয়ার কথা থাকলেও ১০-১২ ইঞ্চি পরপর দিয়েছে ৮ মি.লি. রড। ওয়ালের খাড়া রড ৬ ইঞ্চি পর পর দেয়ার কথা থাকলেও ৮ ইঞ্চি পরপর দিচ্ছে ১৬ মি.লি।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নাসরিন সুলতানা বলেন, মঙ্গলবার বিকেলে ব্রিজ নির্মাণ কাজ দেখে এসেছি। ঠিকদারকে ত্রুটি সংশোধন করে কাজ করার জন্য বলা হয়েছে। পরবর্তীতে তার উপস্থিতিতে ঢালাইয়ের কাজ করা হবে। একইসঙ্গে ঠিকাদারকে ৩ কর্মদিবসের মধ্যে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করা হয়েছে।

রুবেলুর রহমান/এফএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]