গরিবের ৩ হাজার কেজি চাল আত্মসাৎ করলেন চেয়ারম্যান!

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি গোপালগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৩:৫২ পিএম, ২৬ জুন ২০১৯

গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার গোপীনাথপুর ইউনিয়নে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক বরাদ্দকৃত ভিজিডি কার্ডের চাল আত্মসাৎ করেছেন চেয়ারম্যান।

গোপীনাথপুর ইউনিয়নের ৯৭টি ভিজিডি কার্ড থেকে প্রায় তিন হাজার কেজি চাল আত্মসাত করেছেন ওই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শরীফ আমিনুল হক লাচ্চু। ভিজিডি কার্ডধারীরা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ তুলেছেন।

মঙ্গলবার (২৫ জুন) গোপীনাথপুর ইউনিয়ন পরিষদে নির্ধারিত জুন মাসের ভিজিডি চাল উত্তোলনের জন্য কার্ড জমা দিতে আসা কাকলী বেগম, হ্যাপী বেগম ও সাবানা বেগমসহ অনেক কার্ডধারীরা অভিযোগ করে বলেন, গত পাঁচ মাসে আমাদের ৩০ কেজি করে পাঁচ বারে ১৫০ কেজি চাল পাওয়ার কথা। চেয়ারম্যান শরীফ আমিনুল হক লাচ্চু আমাদের প্রতি কার্ডেই পাঁচ মাসের চাল উত্তোলন দেখালেও আমাদের দিয়েছেন চার মাসের চাল। এক মাসের ৩০ কেজি করে চাল আমাদের না দিয়ে আত্মসাৎ করেছেন চেয়ারম্যান।

৫নং ওয়ার্ডের সদস্য শরীফ বাবর আলী ও ৮নং ওয়ার্ডের সদস্য মো. আক্কাস আলী মোল্লা বলেন, কার্ডধারীরা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে যে অভিযোগে তুলেছেন তা সম্পূর্ণ সত্য। চেয়ারম্যান ভিজিডি কার্ডধারীদের কার্ডে কৌশলে পাঁচ মাসের চাল উত্তোলন দেখিয়ে চার মাসের চাল দিয়েছেন। বাকি এক মাসের প্রায় তিন হাজার কেজি চাল আত্মসাৎ করেছেন চেয়ারম্যান।

তবে এ অভিযোগ অস্বীকার করে গোপীনাথপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শরীফ আমিনুল হক লাচ্চু বলেন, আমার নামে যে অভিযোগ করা হয়েছে তা মিথ্যা এবং ভিত্তিহীন। গত ফেব্রুয়ারি মাসে তাদেরকে একসঙ্গে দুই মাসের চাল দিয়েছি আমি।

এর আগে ইউপি চেয়ারম্যান আমিনুল হকের বিরুদ্ধে দুর্নীতি, অনিয়ম ও স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ এনে নয়জন ইউপি সদস্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাছে অনাস্থা প্রস্তাব দেন।

এস এম হুমায়ূন কবীর/এএম/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :