চটপটি বিক্রেতার সততার নজির

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নড়াইল
প্রকাশিত: ১১:১৭ এএম, ০৩ আগস্ট ২০১৯

সততার এক অনন্য নজির স্থাপন করেছেন কালিগঞ্জের চটপটি বিক্রেতা বেলাল হোসেন। চলতি পথে কুঁড়িয়ে পাওয়া ৬৩ হাজার ৫০০ টাকা সত্যিকার মালিকের হাতে তুলে দিয়েছেন তিনি। তার এই সততায় রক্ষা পেয়েছে এক কাঠ ব্যবসায়ীর ক্ষুদ্র ব্যবসা।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার চটপটি বিক্রি করে রাতে বাড়ি ফিরছিলেন কালীগঞ্জ উপজেলার কোলা গ্রামের নুরুল হক মোল্যার ছেলে বেলাল হোসেন। এ সময় পথে একটি টাকার বান্ডিল পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে উপস্থিত হন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আইয়ূব হোসেনের বাড়িতে।

পরে শুক্রবার চেয়ারম্যান টাকা পওয়ার বিষয়টি এলাকায় প্রচার করেন। সেই প্রচারণা শুনে হাজির হন টাকার প্রকৃত মালিক একই উপজেলার পারখুলা গ্রামের কাঠ ব্যবসায়ী আব্দুর রশিদ। এরপর যাচাই-বাছাই শেষে তার হাতে সেই টাকা তুলে দেয়া হয়।

বেলাল হোসেন বলেন, আমি নিজে একজন অভাবী মানুষ। বাবা-মায়ের অভাবের সংসারে ছোট থেকে বড় হয়েছি। সব সময় সৎ পথে টাকা কামাই করে সংসার চালা্ই। কখনও কারও টাকার প্রতি লোভ করিনি। প্রকৃত মালিকের হাতে টাকাটা ফেরত দিতে পেরে আমি খুবই খুশি।

এদিকে হারানো টাকা ফিরে পেয়ে আব্দুর রশিদ বলেন, ‘আমি গরীব মানুষ। ধারদেনা করে কাঠের ব্যবসা করি। হারানো টাকাটা ফেরত পেয়ে মানুষ সম্পর্কে আমার ধারনা পাল্টে গেছে। বিনিময়ে বেলাল হোসেন ও চেয়ারম্যানকে মিষ্টিমুখও করাতে পারিনি।’

এদিকে এ ঘটনার পর সবাই বেলালের প্রশংসা করছেন। তার এমন সততায় মুগ্ধ এলাকাবাসী। ইউপি চেয়ারম্যান আইয়ূব হোসেন বলেন, ‘অভাব সব মানুষকে নষ্ট করতে পারে না, বেলাল তার উৎকৃষ্ট উদাহরণ।’

এমএমজেড/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :