পটুয়াখালীতে হঠাৎ করেই বেড়েছে ডায়রিয়া রোগী

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পটুয়াখালী
প্রকাশিত: ০৭:১২ পিএম, ২১ আগস্ট ২০১৯

পটুয়াখালীতে হঠাৎ করেই ডায়রিয়ার প্রকোপ বেড়ে গেছে। গত এক সপ্তাহে প্রায় ৯০ জন ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে পটুয়াখালী ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে বয়স্ক নারী-পুরুষের পাশাপাশি শিশুরাও রয়েছে।

বৃষ্টি, ভ্যাপসা গরম, কোরবানির পশুর বর্জ্য এবং ঈদের বাড়তি খাবার খাওয়ার কারণে প্রতিদিনই ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

সালেহা খাতুন নামের এক মা বলেন, বাচ্চার হঠাৎ করেই জ্বর, খানিক পরপরই পায়খানা করছে। তাই হাসপাতালে ভর্তি করেছি।

potuakhali

হাসপাতালের ফ্লোরে চিকিৎসাধীন শাফিন নামের একজন বলেন, সোমবার বিকেলে কোরবানির মাংস দিয়ে ভাত খেয়েছি। এরপর থেকেই এই অবস্থা।

হাসপাতালের ডায়রিয়া ওয়ার্ড সূত্রে জানা গেছে, গত এক সপ্তাহে ৯০ জন রোগী ভর্তি হয়েছিল। এর মধ্যে ৬০ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি চলে গেছে। ওই ওয়ার্ডে ১৫ জন রোগীর ধারণক্ষমতা থাকলেও বর্তমানে ৩০ জন রোগী চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করছে। রোগীদের ওয়ার্ডে জায়গা না দিতে পেরে ওয়ার্ডের প্রবেশ পথের সামনে ফ্লোরে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

potuakhali

পটুয়াখালী ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালের (ভারপ্রাপ্ত) তত্ত্বাবধায়ক ডা. জিয়াউল করিম জানান, এ সময় সাধারণত ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ে। আমাদের কাছে পর্যাপ্ত ওষুধ এবং স্যালাইন মজুত আছে। এ নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই।

মহিব্বুল্লাহ্ চৌধুরী/এমবিআর/পিআর