ছাত্রীকে আটকে রেখে প্রেম নিবেদন, অধ্যক্ষের ১ বছরের কারাদণ্ড

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মাগুরা
প্রকাশিত: ০২:০১ এএম, ২৩ আগস্ট ২০১৯

মাগুরার মহম্মদপুরে নিজ প্রতিষ্ঠানের এক ছাত্রীর শ্লীলতাহানির ঘটনায় সহিদুজ্জামান জুয়েল নামে এক শিক্ষককে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। জুয়েল উপজেলার সিটি স্কুল অ্যান্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ও কমার্স কোচিং সেন্টারের পরিচালক।

বৃহস্পতিবার বিকেলে মহম্মদপুর কমার্স কোচিং সেন্টারের সামনে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. নাজিমউদ্দিন এ দণ্ডাদেশ দেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. নাজিমুদ্দিন জানান, মহম্মদপুরের কমার্স কোচিং সেন্টারের এক ছাত্রী বেতন দেয়ার জন্য কোচিং সেন্টারটির পরিচালক সহিদুজ্জামান জুয়েলের কক্ষে যান। এ সময় জুয়েল প্রেম-ভালোবাসার কথা বলে তাকে আটকে রেখে তার শ্লীলতাহানি করেন। পরে ওই ছাত্রী বাড়িতে গিয়ে বিষয়টি তার পরিবারকে জানায়।

এ ঘটনার পর মেয়েটির পরিবার লিখিত অভিযোগ দিলে দুপুরে অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ চালানো হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালতে অপরাধ স্বীকার করে নেয়ায় জুয়েলকে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও তিন মাসের দণ্ড দেয়া হয়।

মো. আরাফাত হোসেন/বিএ