স্ত্রীকে ফাঁসাতে ছেলেকে গুম করলেন বাবা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সুনামগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৯:১২ পিএম, ১৭ অক্টোবর ২০১৯

সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে প্রথম স্ত্রীকে ফাঁসাতে নিজের ছেলেকে গুম করার অপরাধে আজিজুর রহমান নামের এক ব্যক্তিকে কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। বৃহস্পতিবার দুপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক তাহিরপুর উপজেলার ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা মুনতাসির হাসান পলাশ তাকে এক মাসের কারাদণ্ড দেন।

সাজাপ্রাপ্ত আজিজুর রহমান উপজেলার বালিজুড়ী ইউনিয়নের পিরোজপুর গ্রামের হাফিজুর রহমানের ছেলে।

পুলিশ জানায়, গত ৭ অক্টোবর আজিজুর রহমান তার দ্বিতীয় স্ত্রী লিপিয়া বেগমের ছেলে রিমন মিয়াকে (১১) গুম করা হয়েছে বলে থানায় মামলা করেন। এতে আজিজুর রহমানের প্রথম স্ত্রী জামিনা খাতুন (৪২) ও ছেলে মনির হোসেনসহ (২২) প্রথম পক্ষের শ্বশুরবাড়ির আরও কয়েকজনকে আসামি করা হয়।

অন্য আসামিরা হলেন ইছবপুর গ্রামের মৃত শাহাজ উদ্দিন সিকদারর ছেলে মোবারক সিকদার (৪০), তার ভাই মোশারফ সিকদার, মোবারক সিকদারের স্ত্রী ফাতেহা আক্তার ও পিরিজপুর গ্রামের মৃত ফকর উদ্দিন মেম্বারের ছেলে ময়না মিয়া (২৮)।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মোস্তফা জানান, এ ঘটনায় সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মিজানুর রহমানের নির্দেশে গত রোববার আজিজুর রহমানকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি স্বীকার করেন, প্রথম পক্ষের স্ত্রীর পরিবারকে ফাঁসাতে নিজের ছেলেকে গুম করেছেন। তার ছেলে রিমন কিশোরগঞ্জ জেলার কটিয়াদী থানার লক্ষ্মীগঞ্জ গ্রামের দ্বিতীয় পক্ষের শ্যালিকার বাড়িতে আছে। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাদণ্ড দেয়া হয়।

তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতিকুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মূলত প্রথম পক্ষের স্ত্রীকে ফাঁসাতে ছেলে গুমের নাটক সাজায় আজিজুর রহমান। তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

মোসাইদ রাহাত/এমবিআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]