নুসরাতের বাড়ির সামনে থেকে আটক ব্যক্তিকে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফেনী
প্রকাশিত: ০৭:৫৫ পিএম, ২৬ অক্টোবর ২০১৯

ফেনীর আলোচিত মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির বাড়ির সামনে থেকে আটক ব্যক্তিকে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ। শনিবার বিকেলে ‘মেন্টাল ডিসঅর্ডার’ (অপ্রকৃতিস্থ) ওই ব্যক্তিকে তার স্বজনদের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন সোনাগাজী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাঈন উদ্দিন আহমেদ।

এর আগে গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাত ২টার দিকে জসিম উদ্দিন নামের ওই ব্যক্তিকে আটক করে সোনাগাজী মডেল থানা পুলিশ। তার বাড়ি চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার কুতুবখালী গ্রামে।

পুলিশ জানায়, শুক্রবার দিবাগত রাত ২টার দিকে অটোরিকশা নিয়ে নুসরাতের বাড়ির সামনে যান ওই ব্যক্তি। এ সময় অসংলগ্ন কথাবার্তা বলার কারণে তাকে আটক করা হয়। পরে স্বজনদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, তিনি একজন মেন্টাল ডিসঅর্ডার (অপ্রকৃতিস্থ)। শনিবার বিকেলে তাকে স্বজনদের হাতে তুলে দেয়া হয়।

এদিকে নুসরাতের বাড়িতে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে পুলিশ প্রশাসন। শনিবার ওসি মাঈন উদ্দিন আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ৬ এপ্রিল থেকে নুসরাতের বাড়িতে একজন এসআইসহ তিন পুলিশ সদস্য তাদের নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করছেন। রায়ের পর গণমাধ্যমে নুসরাতের পরিবারের সদস্যরা নিরাপত্তাহীনতার কাথ জানালে তা দ্বিগুণ করা হয়েছে। এছাড়াও নুসরাতের বাড়ির আশপাশে একাধিক টহল পুলিশ সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করছে।

বাড়তি নিরাপত্তার কথা স্বীকার করে নুসরাতের বড় ভাই ও মামলার বাদী মাহমুদুল হাসান নোমান বলেন, আমরা শঙ্কার মধ্যে আছি। আসামিরা গত ২৪ অক্টোবর আদালতে প্রকাশ্যে আমাকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়। এর আগেও নানাভাবে আসামি ও তাদের স্বজনরা হুমকি-ধমকি দিয়ে আসছে।

প্রসঙ্গত, গত ২৪ অক্টোবর আলোচিত নুসরাত হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করেন ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচার মো. মামুনুর রশিদ। মামলায় অভিযুক্ত ১৬ আসামিকে মৃত্যুদণ্ড ও প্রত্যেককে এক লাখ টাকা করে জরিমানার নির্দেশ দেন আদালত।

রাশেদুল হাসান/এমবিআর/এমকেএইচ