দুর্ঘটনাস্থলে রেল মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ব্রাহ্মণবাড়িয়া
প্রকাশিত: ০৬:৫৫ পিএম, ১৩ নভেম্বর ২০১৯

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার মন্দবাগ রেলস্টেশনে ঘটে যাওয়া ট্রেন দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে কাজ শুরু করেছে রেল মন্ত্রণালয়ের চার সদস্যের তদন্ত কমিটি। বুধবার বিকেল ৪টার দিকে মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (আইন ও ভূমি) মো. রফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে কমিটির সদস্যরা মন্দবাগ রেলস্টেশনে আসেন।

তদন্ত কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন রেল মন্ত্রণালয়ের উপ সচিব (প্রশাসন-৪) মীর আলমগীর হোসেন, রেলওয়ের যুগ্ম মহাপরিচালক (অপারেশন) মোছা. রাশিদা সুলতানা গণি ও রেলওয়ের প্রধান সংকেত ও টেলিযোগাযোগ কর্মকর্তা মু. আবুল কালাম।

তদন্ত কমিটি দুর্ঘটনাস্থল ঘুরে দেখেন এবং স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে কথা বলেন। পাশপাশি মন্দবাগ স্টেশন মাস্টার জাকের হোসেন চৌধুরীর সঙ্গে কথা বলে স্টেশনের প্যানেল বোর্ড ও রেজিস্টার থেকে বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করেন তারা।

আগামী পাঁচ কর্মদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়ার কথা জানিয়েছে এই কমিটি।

Bbaria-1

পরিদর্শন শেষে রেল মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (আইন ও ভূমি) ও তদন্ত কমিটির প্রধান মো. রফিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এখানে যে তথ্য-উপাত্ত আছে সব আমরা নিয়ে যাচ্ছি। আরও যেসব তথ্য পাওয়া যাবে সেগুলো পর্যালোচনা করে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়া হবে।

এর আগে মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) ভোররাত পৌনে ৩টার দিকে মন্দবাগ রেলওয়ে স্টেশনে আন্তঃনগর তূর্ণা নিশীথা ও আন্তঃনগর উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেনের সংঘর্ষে ১৬ জন নিহত হন। এ ঘটনায় আহত হন শতাধিক যাত্রী। এদিন সকাল সাড়ে ১০টায় দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে রেলপথমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন মন্ত্রণালয় থেকে ঘটনা তদন্তের জন্য কমিটি গঠনের কথা জানান।

দুর্ঘটনা তদন্তে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসনও একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মিতু মরিয়মকে প্রধান করে গঠিত তিন সদস্যের ওই কমিটিও দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে তাদের তদন্ত কাজ শুরু করেছে।

আজিজুল সঞ্চয়/এমবিআর/এমএস

টাইমলাইন