এক মণ ধান বিক্রি করেও মিলছে না দুই কেজি পেঁয়াজ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি গাইবান্ধা
প্রকাশিত: ১১:৪১ এএম, ১৬ নভেম্বর ২০১৯

সারাদেশের মতো গাইবান্ধার বিভিন্ন হাট-বাজারে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে পেঁয়াজের দাম। গত ২৪ ঘণ্টায় কেজিতে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে ৪০ থেকে ৫০ টাকা। গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় এক মণ ধান বিক্রি করেও মিলছে না দুই কেজি পেঁয়াজ। পেঁয়াজের লাগামহীন দাম বাড়ায় কৃষক ও নিম্ন আয়ের মানুষদের মাঝে বাড়ছে হতাশা। এভাবে দাম বাড়লে হয়তো আর রান্নায় পেঁয়াজ ব্যবহার করতে পারবেন না তারা।

গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার সোনাইডাংগা গ্রামের কৃষক সিরাজুল ইসলাম জানান, চলতি আমন মৌসুমের আগাম জাতের ধান কাটার পর তিনি এক মণ ধান বিক্রি করেন ৪৬০ টাকায়। বাড়িতে সামাজিক অনুষ্ঠানে মেহমানদের আপ্যায়নের জন্য কাঁচামাল বাজার করতে এসে পড়েন বিপাকে। এক মণ ধান বিক্রির ৪৬০ টাকায় দুই কেজি পেঁয়াজ দিচ্ছেন না ব্যবসায়ীরা। ২৪০ টাকা কেজি হিসেবে আরও ২০ টাকা পকেট থেকে দিতে হয়েছে। বাজারে এসেই পকেট ফাঁকা। ধার দেনা করে বাজার করতে হয়েছে ।

গাইবান্ধা সদর উপজেলার বাদিয়াখালী ইউনিয়নের কৃষক আমিনুল ইসলাম জানান, বৃষ্টির অভাবে সেচের মাধ্যমে ক্ষেতে পানি, হাজার টাকা বস্তা সার ও ২৫০ টাকা ডেইলি শ্রমিক নিয়ে ধান চাষ করে এখন আধা মণ (২০ কেজি) ধান বিক্রি করেও মিলে না এক কেজি পেঁয়াজ।

সাঘাটা উপজেলার হলদিয়ার চরের কৃষক আমজাদ মিয়া জানান, গত বছর নলছিয়ার চরে পেঁয়াজ চাষ করে অর্থনৈতিকভাবে তিনি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিলেন । সার, পানি, ওষুধ দিয়ে চরের বালু জমিতে পেঁয়াজ চাষ করে ভালো ফলন পান। তবে তাকে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ১৬ থেকে ২০ টাকায় বিক্রি করতে হয়েছে ।

সাধারণ ব্যবসায়ীদের দাবি, আড়ৎ থেকে বেশি দামে পেঁয়াজ কিনতে হচ্ছে বলে তারা বেশি দামে বিক্রি করছেন। বাজার নিয়ন্ত্রণ করতে চাইলে প্রথমে পাইকারী ব্যবসায়ীদের নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। সাধারণ দোকানদাররা কম দামে না পাইলে কীভাবে কম দামে বিক্রি করবে।

সাঘাটা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার আব্দুল মান্নাম মন্ডল বলেন, পেঁয়াজের বাজার ঠিক রাখতে বাজার মনিটরিং ব্যবস্থা জোরদার করতে হবে।

অপরদিকে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রামকৃষ্ণ বর্মণ গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভা কাঁচা বাজারের বিভিন্ন দোকানে অভিযান চালিয়ে বেশি দামে পেঁয়াজ (২৪০ টাকা থেকে ২৬০ টাকায়) বিক্রি করায় কয়েকজন ব্যবসায়ীকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জরিমানা করেছেন। শুক্রবার (১৫ নভেম্বর) রাত ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত এ অভিযান চালানো হয়।

গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রামকৃষ্ণ বর্মণ জানান, পেঁয়াজের বাজার স্বাভাবিক রাখতে আমরা তৎপর আছি।

জাহিদ খন্দকার/আরএআর/এমএস