ইজিবাইকে দিনরাত কাটানো বাবা-মেয়েকে ঘর দিলেন ডিসি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি যশোর
প্রকাশিত: ০৯:৪০ পিএম, ১৭ নভেম্বর ২০১৯

জেলা প্রশাসকের (ডিসি) দেয়া প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী অবশেষে ঘর পেয়েছে ইজিবাইকে বাবার সঙ্গে দিনরাত কাটানো জান্নাতুল মাওয়া (৬)। রোববার (১৭ নভেম্বর) বিকেলে বাবা-মেয়ের হাতে ঘরের চাবি হস্তান্তর করেছেন যশোরের জেলা প্রশাসক (ডিসি) শফিউল আরিফ।

এর আগে তাদের জমিসহ একটি ঘর দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন যশোরের সাবেক জেলা প্রশাসক (ডিসি) আব্দুল আওয়াল। গত ১৩ ফেব্রুয়ারি ‘ইজিবাইকে দিনরাত কাটানো বাবা-মেয়েকে ডেকে নিলেন জেলা প্রশাসক’ শিরোনামে জাগো নিউজে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছিল।

ওই দিন জান্নাতুল মাওয়াকে কাছে ডেকে স্নেহের পরশ দিলেন ডিসি আব্দুল আওয়াল। আদর করে শুনলেন তার কথা। কথা বললেন মাওয়ার বাবা ইজিবাইকচালক মুরাদুর রহমান মুন্নার সঙ্গে। মাওয়ার শৈশব ফিরিয়ে দেয়ার ভাবনার কথাও জানলেন ডিসি। পরে তাদের একটি ঘর করে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।

যশোর সদর উপজেলার আরবপুর ইউনিয়নের মন্ডলগাতী গ্রামে জান্নাতুল মাওয়ার বাবা মুরাদুর রহমান মুন্নার নামে বরাদ্দ ৫ শতক খাস জমির ওপর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের অর্থায়নে এক লাখ টাকা ব্যয়ে টিনশেডের এ ঘর তৈরি করে দেয়া হয়। ঘর পেয়ে দারুণ খুশি মাওয়া ও তার বাবা।

Jashore-Mawoa-home

ঘরের চাবি বুঝিয়ে দেয়ার পর মাহারা জান্নাতুলের দিকে লক্ষ্য রাখার জন্য এলাকাবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন যশোরের জেলা প্রশাসক (ডিসি) শফিউল আরিফ। পাশাপাশি তার খোঁজখবর রাখতে সবার প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন যশোর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ ইব্রাহীম, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ফিরোজ আহমেদ ও প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয়ের উপ-সহকারী প্রকৌশলী এবিএম ফারুক প্রমুখ।

এদিকে ঘর পেয়ে খুশিতে আত্মহারা জান্নাতুল মাওয়া ও তার বাবা। ঘর পাওয়া মাওয়ার বাবা মুরাদুর রহমান মুন্না বলেন, ঘর পাওয়ায় খুব আনন্দ লাগছে। মাওয়াকে নিয়ে ইজিবাইকে দিনরাত কাটানোর দিন শেষ হলো। এই এলাকার প্রতিবেশীদের সঙ্গে সবসময় ভালো সম্পর্ক বজায় রাখব।

Jashore-Mawoa-home

অসহায় বাবা-মেয়েকে ঘর দেয়ায় খুশি হয়েছেন এলাকাবাসীও। ওই এলাকার বাসিন্দা কার্তিক চন্দ্র পাল বলেন, মাহারা মেয়ে আমাদের এলাকায় সরকারের ঘর পেয়েছে, এতে আমরা অনেক খুশি। আমরা অবশ্যই শিশুটির খেয়াল রাখব।

প্রসঙ্গত, জান্নাতুল মাওয়াকে বাবা মুরাদের কাছে রেখে চলে যান মা। এরপর মাওয়াকে পাশে বসিয়ে দিনভর ইজিবাইক চালান তার বাবা। এ নিয়ে সংবাদ প্রকাশিত হলে ১৩ ফেব্রুয়ারি তাদের ডেকে নেন যশোরের সাবেক ডিসি আব্দুল আওয়াল।

শিশু মাওয়ার মাথায় হাত বুলিয়ে একটি ঘর তৈরি করে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন ডিসি আব্দুল আওয়াল। রোববার বিকেলে যশোরের বর্তমান জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শফিউল আরিফ সেই ঘর তাদের হস্তান্তর করলেন।

মিলন রহমান/এএম/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]