পরিচ্ছন্নতা অভিযান রূপ নিল সংঘর্ষে, প্রাণ গেল যুবকের

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মাদারীপুর
প্রকাশিত: ০৮:০১ পিএম, ১০ জানুয়ারি ২০২০

মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলায় দুপক্ষের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝির জেরে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে একজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় উভয়পক্ষের ২০ জন আহত হয়েছেন। সংঘর্ষে প্রতিপক্ষের প্রায় ৫০টি বসতবাড়ি ভেঙে ফেলা হয়েছে।

শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) সকালে উপজেলার উত্তর হোসেনপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত বাবুল মুন্সী (৪৫) একই গ্রামের মজিদ মুন্সীর ছেলে। বাবুল মুন্সীর মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে প্রতিপক্ষের অর্ধশতাধিক বাড়িঘর ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার উত্তর হোসেনপুর গ্রামে আধিপত্য বিস্তার ও পূর্ব শত্রুতার জেরে দীর্ঘদিন ধরে এলাকার দুটি পক্ষের মধ্যে বিরোধ চলছে। বৃহস্পতিবার সকালে দেলোয়ার মেম্বারের পক্ষের কয়েক যুবক মিলে এলাকার জঙ্গল পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা করার জন্য দা ও কাঁচি নিয়ে বের হয়।

বিষয়টি দেখে প্রতিপক্ষ জুলফিকার খালাশীর লোকজন তাদের ওপর হামলা করতে এসেছে ভেবে ওই যুবকদের পরিচ্ছন্নতাকাজে বাধা দিয়ে তাদের ওপর হামলা ও মারধর করে। পরবর্তী সংঘর্ষের আশঙ্কায় বৃহস্পতিবার রাতে সাবেক মেম্বারসহ তিনজনকে আটক করে পুলিশ।

শুক্রবার সকালে বিবাদমান ওই দুটি পক্ষ জুলফিকার খালাশী (৫৫) ও দেলোয়ার মেম্বার পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এতে উভয়পক্ষের ২০ জন আহত হয়। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ।

গুরুতর আহত সিরাজ খালাশী (৪০), জুলফিকার খালাশী (৫৫), কহিনুর খালাশী (৪৫) ও সজিব মুন্সী (৪৫), দেলোয়ার মুন্সী (৩০), বাবুল মুন্সী (৪৫) ও রিপন মুন্সীকে (৪৫) রাজৈর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আহতদের মধ্যে অবস্থার অবনতি হওয়ায় হাসান শেখ (৩৫), বাবুল মুন্সী ও কহিনুর খালাশীকে গুরুতর অবস্থায় ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করার পর বাবুল মুন্সী দুপুর ২টার দিকে মারা যান। বাবুল মুন্সীর মৃত্যুর ঘটনা এলাকায় ছড়িয়ে পড়ার পর প্রতিপক্ষের অর্ধশতাধিক ঘরবাড়ি ভাঙচুর ও লুটপাট হয়।

রাজৈর থানা পুলিশের ওসি খোন্দকার শওকত জাহান বলেন, দুপক্ষের সংঘর্ষে বাবুল মুন্সী নামে একজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে। ওই এলাকায় পুলিশ মোতায়েন আছে।

এ কে এম নাসিরুল হক/এএম/এমকেএইচ