ক্যামেরা নিয়ে দ্বন্দ্বে বন্ধুকে কুপিয়ে হত্যা, চার বন্ধু গ্রেফতার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নরসিংদী
প্রকাশিত: ০৯:২৭ পিএম, ১৫ জানুয়ারি ২০২০
গ্রেফতারকৃত চার বন্ধু

নরসিংদীতে ইয়াছিন মিয়া (১৭) নামে এক কিশোরকে কুপিয়ে হত্যা করেছে তার বন্ধুরা। মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) রাতে পৌর শহরের ইনডেক্স প্লাজার সামনে এ হত্যার ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় চারজনকে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। রাতে শহরের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। নিহত ইয়াছিন মিয়া শহরের পশ্চিম দত্তপাড়া এলাকার মিলন মিয়ার ছেলে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন আড়াইহাজারের আবদুল্লাহপুর এলাকার জহুর আলমের ছেলে মারুফ আল হোসাইন ওরফে মোটা ফারুক (২১), মনোহরদী একদুয়ারিয়ার গিয়াস উদ্দিনের ছেলে দেলোয়ার হোসেন আদনান (২১), সদর উপজেলার নাগরিয়াকান্দি এলাকার মোর্শেদ আলমের ছেলে মারুফ ওরফে ভাগিনা মারুফ (২০) ও পৌর শহরের বানিয়াছল এলাকার গাজী আসাদের ছেলে শোয়েব (৩৫)।

ডিবি পুলিশ জানায়, ইয়াছিনের দীর্ঘদিনের ঘনিষ্ঠ বন্ধু ছিলেন আসামিরা। নয় মাস আগে মারুফ আল হোসাইন ওরফে মোটা ফারুক তাদের বন্ধু আলিফকে পাঁচ হাজার টাকা ধার দেন। পরে আলিফ টাকা পরিশোধ করতে না পেরে তার ডিএসএলআর ক্যামেরাটি ভাগিনা মারুফের কাছে বন্ধক রাখেন। এই ক্যামেরা নিয়ে তাদের মধ্যে সোমবার (১৩ জানুয়ারি) ঝগড়া হয়।

এ সময় ইয়াছিন ও আলিফের বন্ধুরা ভাগিনা মারুফ ও দেলোয়ারকে মারধর করেন। এরই জেরে বুধবার রাতে দেলোয়ার ও ভাগিনা মারুফের পরামর্শে ইয়াছিনকে কুপিয়ে হত্যা করে মোটা ফারুক।

গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) উপপরিদর্শক (এসআই) রূপম কুমার সরকার বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে পুলিশ। এ হত্যাকাণ্ডে জড়িত চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আসামিরা প্রত্যেকেই হত্যাকাণ্ডে জড়িত ছিল বলে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

সঞ্জিত সাহা/এএম/পিআর