ছেলে ও পুত্রবধূর হাতে মার খেয়ে মায়ের আত্মহত্যা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নাটোর
প্রকাশিত: ১০:২৫ পিএম, ০১ জুন ২০২০

নাটোরের সিংড়া উপজেলায় ছেলে ও পুত্রবধূর নির্যাতন সইতে না পেরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করলেন মা। সোমবার (০১ জুন) বিকেলে ঘটনাটি ঘটেছে সিংড়া উপজেলার মাঝগ্রামে। আত্মহত্যাকারী জুলেখা বেগম (৪৭) একই গ্রামের শহিদুল ইসলামের স্ত্রী।

মৃত জুলেখার স্বামী শহিদুল ইসলাম জানান, তার ছেলে জুয়েল রানা সম্প্রতি প্রেম করে ফাতেমা নামে এক মেয়েকে বিয়ে করেন। এ নিয়ে পারিবারিক কলহের সৃষ্টি হয়। বাড়িতে অশান্তি লেগেই ছিল। শহিদুল ইসলাম গতকাল রোববার বাড়িতে ছিলেন না। এ সময় ঝগড়ার একপর্যায়ে তার ছেলে জুয়েল রানা, জুয়েলের ভায়রা সজীব এবং জুয়েলের স্ত্রী ফাতেমা বেগম মিলে জুলেখা বেগমকে মারধর করেন। ঘটনার পর থেকে জুলেখা না খেয়ে খাকেন। সোমবার সারাদিন কিছু না খেয়ে থাকার পর বিকেল ৪টার দিকে ঘরের আড়ার সঙ্গে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন জুলেখা।

সিংড়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরে আলম সিদ্দিকী বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত করে এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

রেজাউল করিম রেজা/এএম/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]