ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে আত্মহত্যা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নাটোর
প্রকাশিত: ০৮:৩৫ এএম, ১২ জুলাই ২০২০

নাটোরের বড়াইগ্রামে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন এক নারী। শনিবার দুপুরে নিজ ঘরে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি। উপজেলার মাঝগাঁও ইউনিয়নের বাহিমালী খ্রিস্টান পল্লীতে এ ঘটনা ঘটে। নিহত জেনি বেবী কস্তা (৪০) ওই গ্রামের মৃত আব্রাহাম কস্তার মেয়ে। পুলিশ ঘরের দরজা ভেঙে তার লাশ উদ্ধার করে।

মৃত্যুর আগে জেনি তার ফেসবুকে লিখেছেন, ‘জন্মেছি আমি এই সুন্দর পৃথিবীতে। মরব এই সুন্দর পৃথিবীতেই। তবে মৃত্যু তুমি আমাকে কষ্ট দিয়ো না। আমি তৈরি তুমি এসো, ভালবেসে গ্রহণ করো।’

বনপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর তৌহিদুল ইসলাম বলেন, জেনি বেবী ঢাকায় একটি কেসরকারি কোম্পানিতে চাকরি করতেন। করোনা মহামারিতে বাড়ি চলে আসেন। প্রায় ১৬ বছর আগে তার বিয়ে বিচ্ছেদ হয়। এরপর আর বিয়ে করেননি। নিঃসন্তান এই নারী তার ছোট ভাই বিলাশ কস্তার সঙ্গেই থাকতেন। বিলাশ ঢাকায় একটি বাইং হাউজে চাকরি করেন।

তিনি বলেন, শুক্রবার জেনির ভাইয়ের স্ত্রী বাচ্চাদের নিয়ে বাবার বাড়িতে যান। এ সময় তিনি একাই বাড়িতে ছিলেন। দুপুরের কোনো এক সময় তিনি নিজ ঘরের আঁড়ার সঙ্গে ওড়নায় ঝুলে আত্মহত্যা করেন। খবর পেয়ে ঘরের দরজা ভেঙে তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ধারণা করা হচ্ছে দীর্ঘ একাকীত্ম আর হতাশায় তিনি আত্মহত্যা করে থাকতে পারেন। তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন দুটো ঘরে একটি বালতির পানিতে ডোবানো অবস্থায় পাওয়া যায়।

রেজাউল করিম রেজা/এফএ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]