একই কারখানায় ২০ রকমের নকল পণ্য উৎপাদন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মাদারীপুর
প্রকাশিত: ০৫:৪২ পিএম, ১৪ জুলাই ২০২০

মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার ইশিবপুর ইউনিয়নের দারাদিয়া গ্রামে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, শিশু খাদ্য ও কসমেটিকসহ ২০ রকমের নকল পণ্য উৎপাদন করায় একটি কারখানা সিলগালা করে দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) দুপুরে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের কর্মকর্তারা অভিযান চালিয়ে কারখানাটি সিলগালা করে দেন। কারখানার মালিককে এছাড়াও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে রাজৈর উপজেলার ইশিবপুর ইউনিয়নের দারাদিয়া গ্রামের মা ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্টের মালিক আব্দুর রশিদ বিভিন্ন নামিদামি ব্র্যান্ডের পণ্য নকল করে উৎপাদন ও বাজারজাত করে আসছেন। বিষয়টি নিয়ে গোয়েন্দা সংস্থা তদন্ত শুরু করে। মঙ্গলবার দুপুরে এই কারখানায় নকল পণ্য উৎপাদনের সময় পুলিশ ও গোয়েন্দাদের সহযোগিতায় বিভিন্ন রকমের পণ্য উৎপাদনের মেশিন ও পণ্য জব্দ করা হয়। তবে এ সময় মালিক ও কর্মচারীরা পালিয়ে যান।

মাদারীপুর ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক জান্নাতুল ফেরদাউস জানান, নামিদামি ব্র্যান্ডের নাম ব্যবহার করে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, শিশু খাদ্য ও কসমেটিকসহ কমপক্ষে ২০ ধরনের নকল পণ্য তৈরি করে বাজারজাত করা হচ্ছিল। দুপুরে এসব নকল পণ্য তৈরির কারখানায় অভিযান চালানো হয়। এ সময় কারখানার মালিক ও কর্মচারীরা পালিয়ে যান।

দীর্ঘদিন ধরে ওই কারখানায় বিএসটিআই ও পরিবেশ অধিদফতরের কোনো অনুমোদন ছাড়াই বিভিন্ন নকল পণ্য উৎপাদন করা হচ্ছিল। অভিযানে ওই কারখানা থেকে প্রায় ২০ ধরনের নকল পণ্য ও উৎপাদনে ব্যবহৃত মেশিন পাওয়া যায়। এ ঘটনায় কারাখানা মালিককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। তিনি না থাকায় তার বোনের কাছে জরিমানার রশিদ দিয়ে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

এ কে এম নাসিরুল হক/আরএআর/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]