মামা-ভাগনের দ্বন্দ্বে প্রাণ গেল যুবকের

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নরসিংদী
প্রকাশিত: ০৬:০৫ পিএম, ২৭ আগস্ট ২০২০

নরসিংদীর রায়পুরায় রাস্তার জমি নিয়ে মামা-ভাগনের দ্বন্দ্বে দুই পক্ষের সংঘর্ষে দেলোয়ার হোসেন (৩০) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ছয়জন। বৃহস্পতিবার (২৭ আগস্ট) দুপুরে রায়পুরা পৌরসভার তাতাকান্দা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত দেলোয়ার হোসেন ওই এলাকার হিরন মিয়ার ছেলে।

আহতরা হলেন- শাকিল মিয়া (২২), আতাউর রহমান (৬০), হিরন মিয়া (৫০), হায়দার আলী (৫০), সাকিব (১৬) ও সোহান (২২)। আহতদের জেলার বিভিন্ন হাসপাতাল ও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

স্থানীয়রা জানান, বাড়ির পাশ দিয়ে চলাচলের রাস্তার জমি নিয়ে তাতারকান্দা এলাকার সাত্তার মাস্টার ও রতন মোল্লার লোকজনের মধ্যে বিরোধ চলছিল। তারা সম্পর্কে মামা-ভাগনে। এ নিয়ে স্থানীয়ভাবে একাধিকবার চেষ্টা করেও সমস্যার সমাধান না হওয়ায় উভয় পক্ষের মধ্যে বিরোধ চরম আকার ধারণ করে। এরই জেরে বৃহস্পতিবার উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এ সময় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে উভয় পক্ষের সাতজন আহত হন।

আহতদের উদ্ধার করে রায়পুরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও নরসিংদী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। নরসিংদী সদর হাসপাতালে নেয়ার পর দেলোয়ার হোসেনকে মৃত ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। গুরুতর অবস্থায় চিকিৎসকরা হিরন ও শাকিল নামে দুজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ তল্লাশি চালিয়ে সাত্তার মাস্টারের দলের মাইনউদ্দিনের বাড়ির বাথরুম থেকে ছয় রাউন্ড গুলিসহ একটি দেশীয় আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করে।

রায়পুরা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মহসিনুল কাদির বলেন, রাস্তা নিয়ে দুই আত্মীয়ের মধ্যে বিরোধ চলছিল। এরই জেরে আজকের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের পর পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে। এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে।

সঞ্জিত সাহা/আরএআর/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]