৩৫ টাকার পেঁয়াজ ৮০ টাকায় বিক্রি করায় ২০ হাজার জরিমানা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফেনী
প্রকাশিত: ০৭:৫৪ পিএম, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০
ফেনীতে পেঁয়াজের আড়তে অভিযান

কৃত্রিম সঙ্কট তৈরি করে অতিরিক্ত দামে পেঁয়াজ বিক্রির দায়ে ফেনীতে অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। বুধবার ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের সহকারী পরিচালক সোহেল চাকমার নেতৃত্বে পরিচালিত এ অভিযানে তিন ব্যবসায়ীকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

জেলা মার্কেটিং কর্মকর্তা হারুন অর রশীদ বলেন, ভারত থেকে পেঁয়াজ বন্ধের ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে ফেনীর অসাধু পেঁয়াজ ব্যবসায়ীরা কৃত্রিম সঙ্কট দেখিয়ে দাম বৃদ্ধি করতে থাকেন। সোমবার পর্যন্ত ফেনীতে পেঁয়াজের কেজি ৩৫-৪০ টাকায় বিক্রি হয়। মঙ্গলবার ভারতীয় পেঁয়াজ রফতানি বন্ধের ঘোষণা শুনে ফেনীর পেঁয়াজ ব্যবসায়ীরা ইচ্ছামতো দাম বৃদ্ধি করতে থাকেন। মঙ্গলবার দিনভর চলে ফেনীতে পেঁয়াজের দাম নিয়ে লুকোচুরি। ওইদিন কিছু আড়ৎদার ৩৫ টাকা দরের পেঁয়াজ ৮০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি করেন।

এমন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার ফেনী শহরে ইসলামপুর সড়কের বিভিন্ন পেঁয়াজ আড়তে অভিযান চালানো হয়। এ সময় কামাল অ্যান্ড ব্রাদার্স নামের একটি আড়তে দেখা যায় মূল্য তালিকায় পেঁয়াজের কেজি ৬৫ লিখা রয়েছে। কিন্তুু ওই দোকানি ক্রেতাদের থেকে ৭০ টাকায় বিক্রি করছেন পেঁয়াজ। অতিরিক্ত দাম বৃদ্ধি ও ক্রেতাদের সঙ্গে প্রতারণার দায়ে কামাল অ্যান্ড ব্রাদার্সকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া তাকিয়া রোডে মূল্য তালিকা প্রদর্শন না করায় ফওজিয়া এন্টারপ্রাইজকে পাঁচ হাজার ও ফেনী ট্রেডার্সকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ফেনীর এক আড়ৎদার জানান, বুধবার পর্যন্ত ফেনীতে ২৫০ মেট্রিক টন পেঁয়াজ মজুত রয়েছে। তারপরও একটি চক্র বিনা কারণে পেঁয়াজের মূল্য বৃদ্ধি করে প্রতারণা করছেন।

রাশেদুল হাসান/এএম/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]