চাল চুরি প্রমাণিত হওয়ায় নওগাঁর দুই চেয়ারম্যান বরখাস্ত

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নওগাঁ
প্রকাশিত: ০৭:৪৩ পিএম, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০
বরখাস্তকৃত চেয়ারম্যান রেজাউল ইসলাম ও ফখরুদ্দিন আলী

অনিয়মের করায় নওগাঁয় দুই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। রোববার (২০ সেপ্টেম্বর) স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মোহাম্মদ ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে তাদের বরখাস্ত করা হয়।

বরখাস্তকৃতরা হলেন- রানীনগর উপজেলার একডালা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রেজাউল ইসলাম এবং পোরশা উপজেলার ছাওড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফখরুদ্দিন আলী আহম্মেদ।

জানা গেছে, একডালা ইউনিয়ন পরিষদে ৪ আগস্ট হতদরিদ্রদের জন্য বরাদ্দকৃত ভিজিডির তিন হাজার ৯৪০ কেজি চাল উত্তোলনপূর্বক আত্মসাতের অভিযোগ উঠে ইউপি চেয়ারম্যান রেজাউল ইসলামের বিরুদ্ধে। পরদিন ইউনিয়ন পরিষদের সচিব সেলিনা আক্তার বাদী হয়ে তিনজনকে আসামি করে থানায় মামলা করেন। এরপর তদন্তে বিষয়টি প্রমাণিত হওয়ায় একটি প্রতিবেদন দেয়া হয়। ওই প্রতিবেদনের প্রেক্ষিতে রেজাউল ইসলামকে বরখাস্ত করা হয়।

রানীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আল মামুন বলেন, উপজেলার একডালা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রেজাউল ইসলামকে সাময়িক বরখাস্তের একটি পত্র পেয়েছি। ইতোমধ্যে তাকে বিষয়টি অবগত করা হয়েছে।

অপরদিকে, পোরশা উপজেলার ছাওড় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ফখরুদ্দিন আলী আহম্মেদের বিরুদ্ধে মৃত্যু নিববন্ধন সনদে ঘষামাজার অভিযোগ উঠেছে। মৃত্যু নিবন্ধন রেজিস্টারে অন্য ব্যক্তির মৃত্যু সংক্রান্ত তথ্য ঘষামাঝা করে প্রকৃত মৃত্যুর তারিখ পরিবর্তন করে মৃত্যু নিবন্ধন সনদ দেন চেয়ারম্যান। তদন্তে বিষয়টি প্রমাণিত হওয়ায় তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

পোরশা উপজেলার ছাওড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফখরুদ্দিন আলী আহম্মেদ বলেন, সোমবার সকালে বরখাস্তের বিষয়টি শুনেছি। তবে কোনো চিঠি পাইনি। বিষয়টি ষড়যন্ত্র মনে হচ্ছে। কারণ ইউনিয়ন সচিবের কাছে নিবন্ধনসহ অন্যান্য বিষয়ে সব ধরনের তথ্য থাকে। নিবন্ধন সবকিছু পূরণ হওয়ার পর আমার কাছে শুধু স্বাক্ষর নেয়া হয়। স্বাক্ষর দেয়া যদি আমার অপরাধ হয় তাহলে কিছু বলার নেই। প্রত্যেকের জন্ম-মৃত্যুর সনদ যাচাই-বাছাই করে স্বাক্ষর করাও সম্ভব না।

পোরশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাজমুল হামিদ রেজা বলেন, ইউপি চেয়ারম্যান ফখরুদ্দিন আলী আহম্মেদকে বরখাস্ত করা হয়েছে। আগামী ১০ দিনের মধ্যে তাকে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে।

আব্বাস আলী/এএম/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]